মেইন ম্যেনু

রিভিউ খারিজের রায় প্রকাশ : এরপর যা যা হবে

একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত দুই আসামি সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরী এবং আলী আহসান মুজাহিদের রিভিউ খারিজের পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশ করেছেন সুপ্রিম কোর্ট।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় দুজনের রিভিউ খারিজের রায় প্রকাশ করেন সর্বোচ্চ আদালত।

আইন অনুযায়ী রিভিউ আবেদন খারিজ হওয়ার পর আসামিদের ফাঁসি কার্যকরের আগ পর্যন্ত কী প্রক্রিয়া অনুসরণ করা হবে, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে তা জানিয়েছেন সরকারের সর্বোচ্চ আইনজীবী অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম।

অ্যাটর্নি জেনারেলের ভাষ্যানুযায়ী এরপর যা যা হবে, তা হলো- রিভিউ খারিজের পূর্ণাঙ্গ রায় আন্তর্জাতিক ট্রাইব্যুলান থেকে কেন্দ্রীয় কারাগারে পাঠানো হবে। কারাগারে পৌঁছানোর পর কারাকর্তৃপক্ষ আসামিদের রিভিউ খারিজের রায় পড়ে শোনাবেন।

এরপর ম্যাজিস্ট্রেটের মাধ্যমে আসামিদের কাছে জানতে চাওয়া হবে, তারা প্রাণভিক্ষার আবেদন করবেন কি না। যদি প্রাণভিক্ষার আবেদন করেন, তাহলে এ জন্য তারা সময় পাবেন। আর যদি না করেন, তাহলে ফাঁসি কার্যকরের সিদ্ধান্ত নির্ভর করবে শুধু স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ওপর। কারাকর্তৃপক্ষ ফাঁসি কার্যকরের অনুমতির জন্য স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কাছে অনুমতি চাইবে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় যখন সময় নির্ধারণ করে সিদ্ধান্ত জানাবে, ঠিক তখনই আসামিদের ফাঁসি কার্যকর করা হবে।

উল্লেখ্য, কারাগারের রেওয়াজ অনুযায়ী এর আগে শুক্রবারে কখনো কোনো ফাঁসি কার্যকর করা হয়নি। যদি রেওয়াজ মেনে চলা হয়, তাহলে রাত ১২টার পর ফাঁসি কার্যকরের সুযোগ নেই। সেক্ষেত্রে শুক্রবার শুরু হওয়ার আগেই ফাঁসি কার্যকর করতে হবে। রাত ৮টায় এ খবর লেখা পর্যন্ত লেখা পর্যন্ত রাত ১২টা বাজতে এখনো ৪ ঘণ্টা বাকি আছে। আইন অনুযায়ী শেষ পর্যন্ত কী হচ্ছে, তা এখন শুধু স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সিদ্ধান্তের ওপরই নির্ভর করছে।






মন্তব্য চালু নেই