মেইন ম্যেনু

রিমান্ডে যা বলেছেন ‘ইসলাম বিতর্ক’ প্রকাশক শামসুজ্জোহা মানিক

নিজের বিবেচনাবোধ থেকেই ‘ইসলাম বিতর্ক’ নামের অনুবাদ সংকলন প্রকাশ করেছেন বলে পুলিশ রিমান্ডে জানিয়েছেন ধর্মানুভূতিতে আঘাত দেয়ার অভিযোগে আটক ব-দ্বীপ প্রকাশনীর প্রকাশক শামসুজ্জোহা মানিক।

শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু বকর সিদ্দিক বলেন,‘গত রাত থেকেই আটক তিনজনকে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। বর্তমান পরিস্থিতিতে ব-দ্বীপের প্রকাশক শামসুজ্জোহা ধর্মীয় উত্তেজনা ছড়ানোর মতো বইটি কেনো প্রকাশ করেছেন তা জানার চেষ্টা করেছে পুলিশ’।

ব-দ্বীপের প্রকাশক, মুদ্রাকর ও বিপণণ প্রধানকে আটকের পর এখন শাহবাগ থানায় বিভিন্ন মেয়াদে রিমান্ড নেয়া হয়েছে।

শাহবাগ থানার ওসি আবু বকর সিদ্দিক আরও বলেন,‘ ধর্ম নিয়ে লেখালেখি করায় লেখক, ব্লগার এবং প্রকাশকরা আক্রান্ত হওয়ার মতো পরিস্থিতিতে তিনি কেনো এই ধরণের বই প্রকাশ করলেন, প্রাথমিকভাবে আটক প্রকাশকের কাছে এই প্রশ্ন করেছি আমরা’।

জবাবে পুলিশকে শামসুজ্জোহা মানিক জানিয়েছেন, নিজের বিবেচনায় লেখা প্রকাশের স্বাধীনতা থেকেই অনুবাদ সংকলন বইটি প্রকাশ করেছেন তিনি।

সোমবার ইসলাম ধর্ম সম্পর্কিত বই ‘ইসলাম বিতর্ক’ নিয়ে আপত্তি ওঠায় অমর একুশে গ্রন্থ মেলা থেকে বইটির প্রকাশনী প্রতিষ্ঠান ব-দ্বীপের স্টল বন্ধ করে দেয় পুলিশ। এতে সম্মতি দেয় বাংলা একাডেমি। রাতে তার প্রকাশক শামসুজ্জোহা মানিক, সম্পাদক শামসুল আলম ও ছাপাখানার মালিক ফকির তসলিম উদ্দিনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

গত মঙ্গলবার তাদেরকে আদালতে হাজির করে ৭ দিনের রিমান্ড চায় শাহবাগ থানা পুলিশ। পরে প্রকাশককে ৫ দিন, ছাপাখানার মালিককে ২ দিন এবং সম্পাদককে ১ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।






মন্তব্য চালু নেই