মেইন ম্যেনু

রেকর্ড সৃষ্টি করলো বঙ্গবন্ধু সেতু : ২৪ ঘণ্টায় ২ কোটি টাকার টোল আদায়

এশিয়ার দ্বিতীয় বৃহত্তম বঙ্গবন্ধু সেতুতে গত ২৪ ঘণ্টায় ২ কোটি টাকার বেশি টোল আদায়ের রেকর্ড তৈরি হয়েছে।

বৃহস্পতিবার সকাল ৬টা থেকে শুক্রবার সকাল ৬টা পর্যন্ত সেতুর পূর্ব ও পশ্চিমপাড়ের টোলপ্লাজা দিয়ে যাত্রীবাহী বাস, গরু বোঝাই ট্রাকসহ ছোট বড় বিভিন্ন ধরনের ২৪ হাজার যানবাহন পারাপার হওয়ায় এ রেকর্ডের সৃষ্টি হয়।

বাংলাদেশ সেতু কর্তৃপক্ষের বঙ্গবন্ধু সেতুর দায়িত্বপ্রাপ্ত এক কর্মকর্তা নাম না প্রকাশের শর্তে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

তিনি এসময় আরো দাবি করেন, ১৯৯৮ সালের ২৩ জুন যান চলাচলের জন্য উন্মুক্ত হওয়ার পর থেকে দীর্ঘ ১৮ বছরে বঙ্গবন্ধু সেতুতে চলাচলরত যানবাহন থেকে ২৪ ঘণ্টায় আদায়কৃত টোলের মধ্যে এটিই সর্বোচ্চ।

এদিকে তিনি আরো জানান, শুক্রবার সকাল থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত তিন হাজারেরও বেশি গরুর ট্রাক দুই পারের টোলপ্লাজা অতিক্রম করেছে।

এ ব্যাপারে টাঙ্গাইলের পুলিশ সুপার মো. মাহবুব আলম জানান, সেতুটি নির্মিত হওয়ার পর এই প্রথম ২৪ ঘণ্টায় গাড়ি চলাচল করেছে ২৪ হাজার ৩শ। আর এ থেকে টোল আদায় হয়েছে ২ কোটি টাকার কিছু বেশি।

আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি ও যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক রাখার ফলে এ অর্জন সম্ভব হয়েছে বলেই মনে করেন তিনি। পবিত্র ঈদুল আয্হায় ঘরমুখো মানুষের স্বাভাবিক চলাচল আর নিরাপত্তা নিশ্চিতে জেলা পুলিশের প্রায় এক হাজার সদস্য মহাসড়কে কাজ করছেন বলেও জানান তিনি।

উল্লেখ্য, প্রথমে যমুনা বহুমুখী সেতু নামে সেতুটির নির্মাণ কাজ শুরু হলেও পরবর্তীতে এটিকে নাম পরিবর্তন করে বঙ্গবন্ধু সেতু নামকরণ করা হয়। বঙ্গবন্ধু সেতু বাংলাদেশের যমুনা নদীর উপরে অবস্থিত একটি সড়ক ও রেল সেতু। ৪.৮ কিলোমিটার দৈর্ঘ্য বিশিষ্ট এই সেতুটির নির্মাণ কাজ শেষ হয় ১৯৯৮ সালে। সেতুটি যমুনা নদীর পূর্ব তীরের ভূঞাপুর এবং পশ্চিম তীরের সিরাজগঞ্জসহ উত্তরবঙ্গের ২৫টি জেলাকে সংযুক্ত করে।






মন্তব্য চালু নেই