মেইন ম্যেনু

রেলের উন্নয়নে সারা দেশে ডাবল লাইন

রেলের উন্নয়নে সারা দেশে ৫০টি প্রকল্প হাতে নেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে ৩৫টি প্রকল্প চলমান। বাকিগুলো চালুর প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। চলমান প্রকল্পে দ্রুতগতিতে এগিয়ে চলেছে সারা দেশে ডাবল লাইন করার কাজ।

বুধবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে (ডিআরইউ) বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন আয়োজিত ‘মিট দ্য রিপোর্টার্সে’ রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, এরই মধ্যে ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম পর্যন্ত ডাবল লাইন নির্মাণের কাজ শেষ পর্যায়ে। শুধু লাকসাম থেকে আখাউড়া বাকি রয়েছে। এটির টেন্ডার শেষ হয়েছে। এটুকু কাজ শেষ হলে ঢাকা-চট্টগ্রাম রেললাইন ডাবল লাইনে উন্নীত হবে। এরপর এই পথে এক্সপ্রেসওয়ে নির্মাণের চিন্তাভাবনা করছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ জন্য চায়না এক্সপ্রেসওয়ের সঙ্গে আলোচনাও চলছে।

মন্ত্রী বলেন, রাজধানীর যানজট নিরসনের জন্য শহরের বিভিন্ন রুটে সার্কুলার ট্রেন চালুর উদ্যোগ হাতে নেওয়া হয়েছে। এটি সার্ভে করা হচ্ছে। এরপর প্রস্তাব পাঠানো হবে পরিকল্পনার জন্য। তারপর অর্থপ্রাপ্তি সাপেক্ষে একনেকে এটি পাস হবে।

মিট দ্য রিপোর্টার্সে মুজিবুল হক বলেন, ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ রুটে শিগগিরই ডাবল লাইন করা হবে। আর ঢাকা-জয়দেবপুর রুটের ডাবল লাইনকে ফোর লেন চালু করা হবে। তবে এর আগে এসব রুটে আরো বেশি কমিউটার ও ডেমু ট্রেন চালু করার উদ্যোগ হাতে নেওয়া হয়েছে।

সবশেষে তিনি বলেন, সরকারের আর মাত্র তিন বছর বাকি আছে। এই তিন বছরের মধ্যে সারা দেশে রেলের দৃশ্যমান অগ্রগতি দেখতে পাবেন দেশবাসী। রেলের জন্য মহাপরিকল্পনা হাতে নেওয়া হয়েছে। আশা করি, দেশবাসী এর সুফল ভোগ করতে পারবেন। আমাদের সম্পদ সীমিত। তাই এই সীমিত সম্পদের মধ্যেই কীভাবে যাত্রীদের সেবা বাড়ানো যায়, সে চিন্তা চলছে সরকারের।






মন্তব্য চালু নেই