মেইন ম্যেনু

রেলের কামরায় বিবস্ত্র তরুণী

মেরামতির জন্য কামরাটিকে সবেমাত্র ক্রেনে ঝোলানো হয়েছে । আর তখনই ভিতর থেকে এল গোঙানির আওয়াজ। ওয়ার্কশপের কর্মীরা হকচকিয়ে গিয়েছিলেন। ক্রেনচালক কামরাটি নামাতেই দরজা খুলে দেখা গেল বাঙ্কে এক তরুণী প্রায় বিবস্ত্র অবস্থায় শুয়ে কাতরাচ্ছেন। কামরায় তার পোশাক ছড়িয়ে-ছিটিয়ে রয়েছে। ঘটনাটি বুধবার দুপুরের।পশ্চিমবঙ্গের হাওড়ার লিলুয়া স্টেশনে এ ঘটনা ঘটে।

সঙ্গে সঙ্গে খবর যায় ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে। জানানো হয় রেলের সিভিল ডিফেন্সকেও। পরে সিভিল ডিফেন্সের নারী কর্মীরা অসুস্থ ওই তরুণীকে পোশাক পরিয়ে পাঠিয়ে দেন লিলুয়া রেল হাসপাতালে।

রেল সূত্রের খবর, যান্ত্রিক ত্রুটি দেখা দেওয়ায় ওই কামরাটি সোমবার সকাল থেকেই টিকিয়াপাড়া কারশেডে আলাদা করে রাখা ছিল। এ দিন ভোরে সেটি লিলুয়া ওয়ার্কশপে আনা হয়। প্রশ্ন উঠেছে, ট্রেনটি হাওড়া স্টেশন ছেড়ে যাওয়ার সময়েই যদি ওই তরুণী কোনও ভাবে কামরায় থেকে গিয়ে থাকেন, তবে কারশেডে পরীক্ষার সময়ে রেলকর্মীদের চোখে পড়েনি কেনো?

পূর্ব রেলের মুখ্য জনসংযোগ আধিকারিক রবি মহাপাত্র বলেন, ‘ঘটনাটি দুঃখজনক। কী করে ওই তরুণী ভিতরে থেকে গিয়েছিলেন তদন্ত চলছে।’’

লিলুয়া আরপিএফের দায়িত্বে থাকা আইসি প্রিয়রঞ্জন বলেন, ‘‘কী করে ওই তরুণী কামরায় ঢুকে পড়েছিলেন তা স্পষ্ট নয়। গাফিলতি থাকলে তদন্ত করে ব্যবস্থা হবে।’

রেল পুলিশ সূত্রে খবর, ওই অজ্ঞাতপরিচয় তরুণীকে এ দিন সন্ধ্যাতেই লিলুয়া রেল হাসপাতাল থেকে হাওড়া জেলা হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। সেখানে তার মেডিক্যাল পরীক্ষাও হবে।






মন্তব্য চালু নেই