মেইন ম্যেনু

রোগাগ্রস্ত ব্যক্তিদের নামাজ

নামাজ মুসলমানের জন্য আল্লাহ তাআলার অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ আবশ্যক পালনীয় ইবাদত। কোনো ব্যক্তি যদি কোনো কারণে অক্ষমও হয়ে যায়, নামাজের হুকুম তার নিকট থেকে রহিত হবে না। নামাজ আদায়ে অক্ষম ব্যক্তিদের মধ্যে রয়েছে অসুস্থ, মুসাফির ও ভয় ও আতংকগ্রস্ত ব্যক্তি।

কোনো ব্যক্তি যদি রোগী, মুসাফির ও ভীত হয় অর্থাৎ নামাজ আদায়ে যাদের কোনো ওজর আপত্তি নেই এমন ব্যক্তিদের মতো নামাজ আদায়ে অক্ষম। তাদের জন্য আল্লাহ তাআলা নামাজ আদায়কে সহজ করে দিয়েছেন। যা আল্লাহ তাআলার রহমতের বহিঃপ্রকাশ।

দাঁড়িয়ে নামাজ আদায় করা সর্বোত্তম কাজ। হাদিসে এসেছে, ‘রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে মানুষের বসে বসে নামাজ আদায় সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেন, ‘যদি দাঁড়িয়ে নামাজ আদায় করে তবে তা সর্বোত্তম। আর যে ব্যক্তি বসে পড়বে তার সওয়াব দাঁড়িয়ে পড়া ব্যক্তির চেয়ে অর্ধেক। আর যে ব্যক্তি শুয়ে আদায় করবে তার সওয়াব বসে আদায়কারীর চেয়েও অর্ধেক।’ (বুখারি)

অসুস্থ ব্যক্তিদের নামাজ আদায়
>> রোগী বা অসুস্থ ব্যক্তির জন্যও দাঁড়িয়ে নামাজ আদায় করা জরুরি। যদি অসুস্থ ব্যক্তি দাঁড়িয়ে নামাজ আদায় করতে না পারে তবে সে চতুষ্পদ (চারজানু) হয়ে বসে বা তাশাহহুদের বৈঠকের ন্যায় বসে নামাজ আদায় করবে।

>> অসুস্থ ব্যক্তি যদি বসে নামাজ আদায় করতে সক্ষম না হয় তবে ডান পার্শ্বের ওপর ভর দিয়ে নামাজ আদায় করবে। তাতেও যদি কষ্ট হয় তবে বাম পার্শ্বের ওপর ভর দিয়ে নামাজ আদায় করবে।

>> অসুস্থ ব্যক্তি যদি ডান ও বাম পার্শ্বের ওপর ভর দিয়ে নামাজ আদায় করতে অক্ষম হয় তবে শুয়ে শুয়ে মাথার দ্বারা ইশারা করে রুকু ও সেজদার মাধ্যমে নামাজ আদায় করবে। অর্থাৎ মানুষের জ্ঞান বা বিবেক থাকা পর্যন্ত কারো জন্যই নামাজ থেকে অব্যহতি বা মাফ নেই।

হজরত ইমরান ইবনে হুসাইন রাদিয়াল্লাহ আনহু থেকে বর্ণিত তিনি বলেন, আমার অশ্ব রোগ ছিল তাই এ অবস্থায় কিভাবে নামাজ আদায় করব তা রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে জিজ্ঞাসা করলাম। তিনি বললেন, ‘দাঁড়িয়ে নামাজ আদায় কর, যদি না পার তবে বসে কর, তাও যদি না পার তাহলে এক পার্শ্বের ওপর ভর করে আদায় কর। (বুখারি)

পরিশেষে…
যতক্ষণ পর্যন্ত মানুষের জ্ঞান বা বিবেক থাকবে ততক্ষণ পর্যন্ত মানুষের জন্য নামাজের হুকুম বলবৎ থাকবে। দাঁড়িয়ে নামাজ আদায় যেহেতু সর্বোত্তম। তাই ওজর না থাকলে দাঁড়িয়ে নামাজ আদায় করা সবার জন্য আবশ্যক কর্তব্য।

আর অসুস্থতার কারণে যদি কোনো ব্যক্তি দাঁড়িয়ে নামাজ আদায় করতে না পারে তবে হাদিসের নির্দেশনা অনুযায়ী মা’জুর ব্যক্তির সুবিধা মতো অবশ্যই নামাজ আদায় করতে হবে।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে ওজর না থাকলে কুরআন-হাদিস মোতাবেক দাঁড়িয়ে নামাজ আদায় করার তাওফিক দান করুন। আর অসুস্থতার কারণে বা কোনো ওজর থাকলে উল্লেখিত নিয়মে তার সুবিধা মোতাবেক পন্থায় নামাজ আদায় করার তাওফিক দান করুন। আমিন।






মন্তব্য চালু নেই