মেইন ম্যেনু

রোগীর আত্মীয়দের ভয়ে মার্শাল আর্ট শিখছেন ডাক্তাররা!

বিশ্বের নানা দেশের হাসপাতাল বা ক্লিনিকগুলোতে দায়িত্বরত চিকিৎসকদের শতকরা ৭৫ ভাগই কোনো না কোনো সময় সহিংসতা বা হুমকির শিকার হন। বিশেষ করে কোনো ভুল হলেই চিকিৎসাধীন রোগীদের আত্মীয় স্বজনরা তাদের ওপর চড়াও হয়ে বসেন।

রোগীর স্বজন-পরিজনের হাত থেকে নিজেদের রক্ষায় ভারতের অন্যতম বৃহৎ হাসপাতাল অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অফ মেডিকেল সায়েন্সেসের (এআইএমএস) চিকিৎসকরা মার্শাল আর্টস শিখতে শুরু করেছেন।

হিন্দুস্তান টাইমস পত্রিকা খবর দিচ্ছে, এআইএমএস-এর ১৫০০ রেসিডেন্ট চিকিৎসক চলতি মাস থেকে প্রতিদিন মার্শাল আটর্সের প্রশিক্ষণ নেবেন। প্রতি ১০০ জন চিকিৎসক জিমখানা ক্লাবে গিয়ে ব্ল্যাক বেল্টধারী প্রশিক্ষকের কাছে টাইকায়োন্ডোসহ নানা ধরনের মার্শাল আর্টসের প্রশিক্ষণ নেবেন।

মেডিকেল সাময়িকী ল্যান্সেটে প্রকাশিত এক প্রতিবেদন বলছে, বিশ্বের নানা দেশে হাসপাতাল বা ক্লিনিকগুলোতে দায়িত্বরত চিকিৎসকরা শতকর ৭৫ ভাগই জীবনের কোনো না কোনো সময় সহিংসতা বা হুমকির শিকার হন। ২০১৬ সালে এ ধরনের ঘটনার সংখ্যা ছিল শতকরা ৪০ ভাগ।

এর পেছনে অনেকগুলো কারণ রয়েছে বলে ল্যান্সেটে বলা হয়েছে। এগুলো হলো- সরকারি হাসপাতালে ধারণক্ষমতার বেশি রোগী ভর্তি, সরকারি- বেসরকারি হাসপাতালে দুর্নীতি এবং উঁচু হারে চিকিৎসা ফি, যার একটা অংশ চিকিৎসরা পেয়ে থাকেন। এর ফলে অনেক ক্ষেত্রেই চিকিৎসকরা ও রোগীর মধ্যে যে আস্থার সম্পর্কে থাকে তা বিনষ্ট হয়।






মন্তব্য চালু নেই