মেইন ম্যেনু

রোনালদোর হ্যাটট্রিকে পর্তুগালের দারুণ জয়

সদ্য শেষ হওয়া মৌসুমে রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে নিজের সেরা সময় কাটিয়েছেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। এবার জাতীয় দলের জার্সিতেও জ্বলে উঠলেন সিআর-সেভেন। আর তার আগুনে পুড়ল আর্মেনিয়া।

শনিবার রাতে ইউরো বাছাইপর্বে রোনালদোর হ্যাটট্রিকে আর্মেনিয়ার বিপক্ষে ৩-২ গোলে জিতেছে পর্তুগাল। ক্লাব ও জাতীয় দলের হয়ে এটা রোনালদোর টানা তৃতীয় হ্যাটট্রিক।

গত নভেম্বরে বাছাইপর্বের প্রথম লেগে আর্মেনিয়াকে রোনালদোর একমাত্র গোলে হারিয়েছিল পর্তুগিজরা। এবার ফিরতি লেগ জিতে গ্রুপ ‘আই’-এর শীর্ষে উঠেছে রোনালদোর দল। পাঁচ ম্যাচ শেষে পর্তুগালের সংগ্রহ ১২ পয়েন্ট।

ঘরের মাঠে ম্যাচের শুরুটা অবশ্য ভালো হয়নি পর্তুগালের। ১৪ মিনিটে গোল হজম করে স্বাগতিকরা। দারুণ এক গোলে আর্মেনিয়াকে এগিয়ে দেন মার্কোস পিজেলি। ৩৫ গজ দূর থেকে দারুণ এক ফ্রি-কিকে গোলটি করেন তিনি।

অবশ্য ম্যাচে ফিরতে বেশি সময় লাগেনি পর্তুগালের। ২৯ মিনিটে পেনাল্টি থেকে দলকে সমতায় ফেরান রোনালদো। প্রথমার্ধে অবশ্য আর কোনো গোল হয়নি।

দ্বিতীয়ার্ধে আবার জ্বলে ওঠেন রোনালদো। তিন মিনিটের মধ্যে দুই গোল করে পর্তুগালকে ৩-১ গোলে এগিয়ে দেন তিনবারের ফিফা বর্ষসেরা এই খেলোয়াড়। সেই সঙ্গে নিজের হ্যাটট্রিক পূরণ করেন তিনি।

৫৫ মিনিটে প্রথমে সতীর্থ ব্রুনো আলভেসের পাস থেকে ডান পায়ের শটে দলকে এগিয়ে নেন রোনালদো। আর ৫৮ মিনিটে ডান পায়ের আরেকটি শটে স্কোরলাইন ৩-১ করে ফেলেন রিয়াল মাদ্রিদের এই তারকা।

৬২ মিনিটে এক খেলোয়াড়কে হারাতে হয় পর্তুগালকে। দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন মিডফিল্ডার তিয়াগো। ফলে ১০ জনের দলে পরিণত হয় পর্তুগিজরা। এতে পর্তুগালকে খানিকটা চেপে ধরে আর্মেনিয়া।

৭২ মিনিটে একটি গোল শোধ করে ম্যাচ জমিয়েও তোলে আর্মেনিয়া। দলের হয়ে গোলটি করেন রায়ার মিয়োকান। কিন্তু শেষ রক্ষা হয়নি। শেষ পর্যন্ত ৩-২ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে পর্তুগাল।






মন্তব্য চালু নেই