মেইন ম্যেনু

লংকানদের অনায়াসে হারাল পাকিস্তান

ওয়ানডে সিরিজ হারলেও শেষ ম্যাচটিদে ঘুরে দাঁড়ানোর ইঙ্গিত দিয়েছিল লংকানরা। পাকিস্তানের বিপক্ষে ৩৬৮ রানের চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়ে ম্যাচ জিতেছিল ১৬৯ রানের বিশাল ব্যবধানে। কিন্তু টি২০ সিরিজে এসে সেই আগের মতই। এবারও হারের বৃত্তে বন্ধি স্বাগতিকরা। প্রথম টি২০তেই ২৯ রানে লংকানদের হারিয়েছে পাকিস্তান।

কলম্বোয় প্রথমে ব্যাট করে পাকিস্তান ৫ উইকেটে তুলল ১৭৫ রান। মজার ব্যাপার হলো, আহমেদ শেহজাদ, শোয়েব মালিক আর উমর আকমল, তিনজনই আউট হয়েছেন একই স্কোরে আউট হয়েছেন। ৪৬ করে। মূলতঃ তিনটি ৪৬-এর ওপর ভর করেই বড় স্কোর গড়ে পাকিস্তান।

এদের মধ্যে মালিক ছিলেন অপরাজিত। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টি২০ দিয়ে পাকিস্তানে ছয় বছর পর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফিরেছে। আর মালিকও প্রায় ১৪ মাস পরে ফিরেছেন দলে। সর্বশেষ ৯ ইনিংসে মালিকের গড় ৯৬.২৫! মালিক ফেরার পর আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে শেষ ১৩ ম্যাচের দশটাই জিতেছে পাকিস্তান! দশম জয়টি এল আজ। শ্রীলংকাকে ২৯ রানে হারিয়ে।

১৭৬ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে ১৯ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে ফেলা শ্রীলংকা একবারের জন্যও ম্যাচে ফিরতে পারেনি। শেষ পর্যন্ত ৭ উইকেটে ১৪৬ রান করে থেমেছে তারা। লংকানদের পক্ষে আজ চারজনের অভিষেক হয়েছে। এঁদের মধ্যে মিলিন্দা সিরিবর্ধনে করেছেন ইনিংস সর্বোচ্চ ৩৫। সোহেল তানভীর নিয়েছেন ৩ উইকেট।

এবারের শ্রীলঙ্কা সফরে এখন পর্যন্ত নয়টি ম্যাচ খেলে ছয়টিতেই জয় পেয়েছে পাকিস্তান। আরও মজার ব্যাপার হলো, টেস্ট সিরিজের ট্রফি হাতে তুলেছেন মিসবাহ। ওয়ানডে সিরিজের ট্রফি আজহার আলী। এবার তৃতীয় অধিনায়ক হিসেবে টি-টোয়েন্টি সিরিজের ট্রফি তোলার অপেক্ষায় আছেন শহীদ আফ্রিদি। সিরিজের দ্বিতীয় শেষ টি-টোয়েন্টিটা হারলেও তো আর সিরিজ হারবে না পাকিস্তান!






মন্তব্য চালু নেই