মেইন ম্যেনু

লক্ষ্য নির্ধারণের সময় যে ভুলগুলো করেন ব্যর্থ মানুষেরা

ব্যর্থ মানুষ দিয়া কখনই কোন সাফল্য অর্জিত হয় না। কথাটি যে প্রসঙ্গেই বলিয়া থাকুন না কেন বাক্যটির যে বিশেষ তাত্পর্য আছে ইহাতে কিন্তু কোনই সন্দেহ নাই। মানবজীবনের সকল ক্ষেত্রেই এই কথাটি সমধিক প্রযোজ্য। মানুষের জীবনে সাফল্য আসে অধ্যবসায়, নিষ্ঠা, একাগ্রতা এবং সততার বদৌলতে। এই সমাজে যাহারা সত্যিকার অর্থে সফল বলিয়া পরিচিত তাহারা সন্দেহাতীতভাবে অধ্যবসায়ী, একাগ্রচিত্ত এবং পরিশ্রমী। অবশ্য ‘সাফল্য’ শব্দটি অনেকের জন্য আবার ভিন্ন ভিন্ন ধারণা রূপে চিহ্নিত হয়।

কথায় বলে পরিকল্পনাবিহীন লক্ষ্য কেবলই একটি ইচ্ছা মাত্র। যেটাকে অর্জন করা কখনোই সম্ভব নয়। তবুও অনেকেই বারবার জেনে শুনে এই ভুলটি করে থাকেন নিজেদের লক্ষ্য নির্ধারণের সময়। এবং ব্যর্থ হন! শুধু এই একটি নয়, দৈনন্দিন জীবনে এমন বেশকিছু ভুল করার কারণেই যথেষ্ট ইচ্ছে ও আগ্রহ থাকার ফলেও লক্ষ্য অর্জনে ব্যর্থ হন মানুষ। কি সেই ভুলগুলো? চলুন দেখে আসি লক্ষ্যের কাছাকাছি যাওয়ার পথে সচরাচর করে বসা মানুষের সেই ভুলগুলোকে।

১. অন্যের ইচ্ছাকে প্রাধান্য দেওয়া

লক্ষ্য অর্জনের পথের গোড়াতেই এই একটি ভুল করে বসে মানুষ। আর অহরহ করা এই ভুলটি হচ্ছে নিজের মন কি চায় সেটা না ভেবে অন্যের কথানুসারে চলা। না, এমনটা বলছি না যে অন্যেরা কখনো কোন ভালো উপদেশ বা পরামর্শ দেন না। অন্যের পরামর্শ শুনুন এবং বিবেচনা করুন। কি মনে হচ্ছে আপনার? কি করা উচিত হবে? অন্যকে শুনুন, তবে নিজেকেই প্রাধান্য দিন।

২. পরিস্থিতি দ্বারা প্রভাবিত হওয়া

একজন মানুষ কি সিদ্ধান্ত নেবে সেটা প্রভাবিত হয় সে কেমন পরিবেশে বেড়ে উঠেছে বা তার আদর্শ ও চিন্তাভাবনা কেমন এগুলোর ওপরেই। তবে এমনটাও তো হতে পারে যে আপনি যেটাকে শেষ ভাবছেন সেটা আসলে শুরু? আপনার ছোটখাটো চিন্তার পরিসর থেকে হয়তো ঘরের চার দেয়ালকেই একদম ঠিকঠাক মনে হচ্ছে। কিন্তু কে জানে, ঘরের এই চারদেয়ালের বাইরে হয়তো আরো অনেক সম্ভাবনা লুকিয়ে আছে আপনার জন্যে? তাই যেভাবে আছেন, যেখানে আছেন, থাকুন। কিন্তু নিজের মনকে প্রসারিত করে দিন। নিজের লক্ষ্যকে সীমাবদ্ধ না করে সেটাকে আপনার চিন্তাই বাইরেও ডানা মেলতে দিন।

৩. ভুলকে আঁকড়ে ধরা

অনেক সময় মানুষ একটা কাজ ভুল জেনেও প্রতিনিয়ত করে থাকে। আর এর কারণ হচ্ছে এই যে, তার মনে জমাট বেঁধে থাকে অতীতের স্মৃতি। উদাহরনস্বরূপ, ধরুন আপনি একটা ব্যবসা শুরু করেছেন। কিছুদিন পরেই বুঝতে পারলেন যে এটা আসলে আপনার জন্যে নয়। কিন্তু এতটা টাকা আর সময় নষ্ট করে ব্যবসাটা শুরু করেছেন বিধায় সেটাকে বন্ধও করলেন না। ক্লান্ত, অবসন্ন ও অনিচ্ছুক একটা মন নিয়ে সেটাকে চালিয়েই যেতে থাকলেন। এর ফলাফল কখনোই ভালো কিছু আশা করা যায়না। আর তাই নিজেকে জোর না করে যখন যেটাকে ভুল মনে হয় সেটা থেকে ফিরে আসুন। সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় পরিবর্তনের জন্যেই। তাই ভুল রাস্তায় চলে গিয়েছেন মনে হলে রাস্তা বদলান। নিজের ওপর পুরোপুরি বিশ্বাস রাখুন। কারণ আপনার চাইতে ভালো আপনাকে আর কেউই জানেনা।

৪. লক্ষ্য ও কৌশলকে এক করে ফেলা

লক্ষ্য আর কৌশল হচ্ছে একেবারে ভিন্ন দুটো ব্যাপার। লক্ষ্য হচ্ছে যেটা আপনি পেতে চাইছেন। আর কৌশল হচ্ছে লক্ষ্যকে অর্জন করার জন্যে পুরো পথটাকে ছোট ছোট খন্ডে ভাগ করে সেটাকে যখন অর্জন করছেন আপনি। মুলত, কৌশল হচ্ছে লক্ষ্যকে অর্জনের রাস্তা। তাই লক্ষ্য আর কৌশলকে কখনোই এক করে ফেলার ভুলটি করবেন না। অনেকেই এই ভুলটি করে থাকেন আর একটি কৌশলকে অর্জন করে ফেলেই লক্ষ্য সম্পর্কে উদাসীন হয়ে পড়েন। দুটোকে আলাদা করে ভাবতে অভ্যস্ত হয়ে উঠুন।-প্রিয়






মন্তব্য চালু নেই