মেইন ম্যেনু

লঞ্চে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রীকে ধর্ষণ, প্রেমিক আটক

চাঁদপুর মাদ্রাসারোড লঞ্চ ঘাট এলাকায় লঞ্চের কেবিনে বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া প্রেমিকাকে ধর্ষণের অভিযোগে প্রেমিক জুয়েলকে আটক করেছে নৌ-পুলিশ।

রবিবার বিকাল সাড়ে ৫ টায় তাকে আটক করে মডেল থানা পুলিশের কাছে হস্থান্তর করেন নৌ-পুলিশের ইনচার্জ মোশারফ হোসেন।

পুলিশ সূত্র জানা যায়, ঢাকা থেকে সকাল ৯টায় প্রেমিক জুয়েল (২৫) তার প্রেমিকাকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে মিতালী লঞ্চে ওঠে। এসময় প্রেমিক জুয়েল জোরপুর্বক তাকে ধর্ষণ করে। কয়েকজন লঞ্চ যাত্রী মেয়েটির চিৎকার শুনতে পেয়ে লঞ্চ কর্তৃপক্ষকে ঘটনাটি অবহিত করে। পরে কর্তৃপক্ষ নৌ-পুলিশের মাধ্যমে তাদেরকে আটক করে চাঁদপুর মডেল থানায় পাঠায়।

আটক জুয়েল আহাম্মেদ ঢাকা রামপুরা মগবাজার মধুবাগ ১৩/বি গোলাম রসুলের ছেলে ও প্রেমিকা (‘ত’ আদ্যক্ষর) উত্তর বাড্ডা শাহাজাতপুরের মতিউর রহমানের মেয়ে। সে ঢাকার গুলশান মানারাত ইন্টারন্যাশনাল কলেজের বিবিএ’র ছাত্রী।

দীর্ঘ ৪ বছর যাবত তাদের সাথে প্রেমের সম্পর্ক ছিলো।

তবে, এ ব্যাপারে ওই প্রেমিক যুগলের কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

চাঁদপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মামুনুর রশিদ জানান, তাদেরকে আগামিকাল সোমবার চাঁদপুর আদালতে পাঠানো হবে। আদালত বিষয়টির উপর নির্দেশ প্রদান করলে প্রেমিক জুয়েলের বিরুদ্ধে ধর্ষণ অথবা প্রতারণা মামলা দায়ের করা হবে।






মন্তব্য চালু নেই