মেইন ম্যেনু

লন্ডনে খালেদা-তারেকের বৈঠকে যা থাকছে

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া লন্ডন যাচ্ছেন মঙ্গলবার (১৫ সেপ্টেম্বর)। তাঁর লন্ডন সফর নিয়ে রাজনৈতিক অঙ্গনে চলছে চুলচেরা বিশ্লেষন। দেশ-বিদেশে হচ্ছে নানা আলোচনা-সমালোচনা। এ সফরের বিষয়ে বেগম জিয়ার ডাক্তার দেখানো ছাড়া অন্যকোন বিষয়ে মুখ খুলছেন না সিনিয়র নেতারা।

এ বিষয়ে খোঁজ নিয়ে খালেদা-তারেকের একান্ত ঘনিষ্টজনদের সূত্রে জানা গেছে, বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া লন্ডনে ডাক্তার দেখানোর পাশাপাশি দল পুনর্গঠন, মধ্যবর্তী নির্বাচনের দাবিতে সরকারের বিরুদ্ধে আগামী দিনের আন্দোলন-সংগ্রামসহ নানান বিয়য়ে আলোচনা করবেন খালেদা-তারেক।

সূত্রে আরও জানাগেছে, বর্তমানে বিএনপির জেলা-উপজেলা পর্যায়ে সম্মেলন চলছে এবং আগামী ডিসেম্বরের আগেই কেন্দ্রীয় সম্মেলন শেষ করা হবে। কেন্দ্রীয় সম্মেলনে কোন নেতাদের দলের গুরুত্বপূর্ণ পদে স্থান দেওয়া হবে এবং দল ছুট ও সংস্কারপন্থীদের বিষয়ে দলের অবস্থান কি হবে। সে বিষয়টিও স্থান পাবে তাদের মা-ছেলের আলোচনায়।

সূত্রটি আরও জানিয়েছে, বর্তমানে দেশের ৮০ ভাগ মানুষ বর্তমান সরকারের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে। দল গুছিয়ে আগামী জানুয়ারিতে আন্দোলনে নামারও চিন্তা ভাবনা করছে বিএনপি। সে বিষয়েও দলের এই সিনিয়র দুই নেতারা মধ্যে বিস্তারিত আলোচনার হওয়ার কথা রয়েছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য লে. জে. (অব) মাহবুবুর রহমান বলেন, এটি বিএনপি চেয়ারপারসনের একান্ত ব্যক্তিগত সফর। তিনি চিকিৎসার জন্য লন্ডনে যাচ্ছেন। তাছাড়া সেখানে তার বড় ছেলে পরিবার নিয়ে থাকেন। তিনি তার পরিবারের সঙ্গে কিছু সময় কাটাবেন।

প্রসঙ্গত, চিকিৎসার জন্য মঙ্গলবার (১৫ সেপ্টেম্বর) লন্ডনে যাচ্ছেন বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া। ওইদিন রাত সাড়ে ৯টায় এমিরেটস এয়ারলাইন্সের একটি বিমানযোগে যুক্তরাজ্যের উদ্দেশ্যে ঢাকা ছাড়বেন সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী। চেয়ারপারসনের একান্ত সচিব এ বি এম আব্দুস সাত্তার ও গৃহপরিচারিকা ফাতেমা খালেদা জিয়ার সফরসঙ্গী হিসেবে তার সঙ্গে যুক্তরাজ্যে যাবেন।

যুক্তরাজ্যে অবস্থানরত খালেদা জিয়ার বড় ছেলে তারেক রহমান ও তার পরিবারের সঙ্গে পবিত্র ঈদুল আযহা পালন শেষে সাবেক এই প্রধানমন্ত্রীর দেশে ফেরার কথা রয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই