মেইন ম্যেনু

লন্ডনে সমুদ্রসৈকতে পাঁচজনের মৃত্যু

লন্ডনের সাসেক্স কাউন্টির ক্যাম্বার স্যান্ডস সমুদ্রসৈকতে পাঁচজন মারা গেছেন। জেলিফিশের কারণে তাদের মৃত্যু হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

ব্রিটেনে গতকাল বুধবারকে এ বছরের সবচেয়ে তপ্ত দিন হিসেবে বলা হয়েছে। গরমের সময় ক্যাম্বার স্যান্ডস সমুদ্রসৈকত জনসাধারণের খুবই পছন্দের জায়গা। এ কারণে সেদিন সৈকতে একটু ঠাণ্ডার পরশ পেতে ভিড় করেছিলেন অনেকে।

বুধবার স্থানীয় সময় রাত ৮টার দিকে স্রোতের গতি কমে এলে নাটালজা টেলর নামের এক নারী দুইজনের মৃতদেহ দেখতে পান বলে জানায় রয়াল ন্যাশনাল লাইফবোট ইনস্টিটিউট (আরএনএলআই)।

রে হারবারের লাইফবোট অপারেশন ম্যানেজার রিচার্ড টোলেট জানান, স্রোত কমে গেলে এক দম্পতির মৃতদেহ ভেসে আসে। এক নারী এটা দেখে তাদের খবর দিয়েছিলেন এবং বলেছিলেন পানির মধ্যে আরো একজনের মৃতেদেহ রয়েছে। এরপর তারা লাইফবোট ও হেলিকপ্টার নিয়ে তাকে খুঁজে বের করার চেষ্টা করেন।

এর আগে স্থানীয় সময় দুপুর সোয়া ২টার দিকে সেখানে তিনজন অসুস্থ হয়ে পড়লে কোস্টগার্ডের পক্ষ থেকে হেলিকপ্টার, লাইফবোট, উদ্ধারকারী দল ও এয়ার অ্যাম্বুলেন্স পাঠানো হয়েছিল। ওই তিনজনের মৃত্যুর পরপর সতর্ক করা হয়েছিল সবাইকে, পানির কাছে যেন কেউ না যায়।

ওই সময় সৈকত সম্পূর্ণ ফাঁকা করা হয়েছিল এবং জনগণকে দূরে থাকতে পরামর্শ দেওয়া হয়েছিল। জেলিফিশের কারণে তাদের মৃত্যু হতে পারে বলে ধারণা করছে কর্তৃপক্ষ।

সাসেক্স পুলিশ জানায়, নিহতরা অভিবাসী। এটা একটা অবিশ্বাস্য দুঃখজনক ঘটনা। তাদের পরিচয় শনাক্ত ও তাদের আত্মীয় স্বজনদের খুঁজে বের করার চেষ্টা করা হচ্ছে।

এর আগে গত শুক্রবার ব্রিটিশ উপকূলীয় অঞ্চলে সাতজন মারা গেছেন।






মন্তব্য চালু নেই