মেইন ম্যেনু

লন্ডন পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ছয় দিনের ব্যক্তিগত সফরে লন্ডনে পৌঁছেছেন। শুক্রবার স্থানীয় সময় বিকেল ৩টা ৪৫ মিনিটে বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইট যোগে তিনি হিথরো বিমানবন্দরে অবতরণ করেন।
যুক্তরাজ্যে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার এম এ হান্নান এবং যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা বিমানবন্দরে প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানান। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে নিরাপত্তা ও ব্যক্তিগত কর্মকর্তাসহ প্রায় ৫০ জনের একটি দল রয়েছে।
বাংলাদেশ হাইকমিশনের প্রেস মিনিস্টার নাদিম কাদির জানান, এটি প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত সফর। রোববার যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের উদ্যোগে প্রধানমন্ত্রীকে একটি সংবর্ধনা দেওয়া হবে। এ ছাড়া প্রধানমন্ত্রীর অন্য কোনো কর্মসূচির কথা আনুষ্ঠানিকভাবে জানা যায়নি।

রোববারের সংবর্ধনা সম্পর্কে বৃহস্পতিবার যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগ এক সংবাদ সম্মেলনে বলেছে, দলীয় সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী হিসেবে বাংলাদেশকে উন্নতি ও সমৃদ্ধির দিকে নিয়ে যাওয়া এবং ভারতের সঙ্গে সীমান্ত চুক্তির সফল কার্যকরের জন্য যুক্তরাজ্যপ্রবাসীদের পক্ষ থেকে শেখ হাসিনাকে থেকে এই সংবর্ধনা দেওয়া হবে। ব্রিটিশ পার্লামেন্টের বেশ কয়েকজন এমপি, বাংলাদেশি বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ ও দলীয় নেতা-কর্মীরা এতে উপস্থিত থাকবেন। লন্ডনের পিকাডেলির শেরাটন পার্ক লেইন হোটেল বলরুমে ওই সংবর্ধনা অনুষ্ঠানটি হবে।

তবে আগামী মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ পরিবারের অন্য সদস্যরা ব্রিটিশ পার্লামেন্টে যেতে পারেন। ওই দিন হাউস অব কমন্সে টিউলিপ সিদ্দিকের আনুষ্ঠানিক বক্তৃতা দেওয়ার কথা রয়েছে। ঐতিহ্যগতভাবে নতুন এমপিরা পার্লামেন্টে একটি আনুষ্ঠানিক বক্তৃতা দেন। একে ‘মেইডেন স্পিচ’ বলা হয়। এ ছাড়া গত বুধবার বাংলাদেশিদের এক অনুষ্ঠানে বক্তৃতা দিতে গিয়ে ব্রিটিশ এমপি স্টিফেন টিমস বলেন, ব্রিটিশ পার্লামেন্টে ভাগনি টিউলিপ সিদ্দিকের অভিষেক বক্তৃতা দেখতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা লন্ডন আসছেন।






মন্তব্য চালু নেই