মেইন ম্যেনু

লাগেজ দিতে না পারায় যাত্রীকে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার নির্দেশ শাহজালালে

লিবিয়া প্রবাসী কুমিল্লার দাউদকান্দির ইলিয়াস এবং কাতার প্রবাসী ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়ার চন্দ্রদাশ এয়ারএয়াবিয়ার একটি ফ্লাইটে সোমবার সকাল ৯টার দিকে ঢাকায় অবতরণ করেন। একঘণ্টা বেল্টে অপেক্ষা করেও লাগেজ পাননি তারা। বেল্টে আর কোনও লাগেজও নেই। এয়ারলাইন্সের কোনও কর্মকর্তা-কর্মচারীরও দেখা নেই। তাদের দেখে এগিয়ে যান বিমানবন্দরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মুহাম্মদ ইউসুফ। তাৎক্ষণিকভাবে এয়ারএরাবিয়া এয়ারলাইন্সের ম্যানেজারকে দুই যাত্রীর ব্যাগ আনার উদ্যোগ নিতে বলেন এবং একই ফ্লাইটে ব্যাগ না আসার কারণে অন্তর্বর্তীকালীন ক্ষতিপূরণ হিসেবে প্রত্যেককে তিন হাজার টাকা করে দেওয়ার নির্দেশ দেন। ২১ দিনের মধ্যে ব্যাগ না আসলে নিয়মানুযায়ী পূর্ণ ক্ষতিপূরণ দেওয়ারও নির্দেশনা দেন।

পাশাপাশি এ ধরনের দায়িত্বে অবহেলার ক্ষেত্রে ভবিষ্যতের জন্য সতর্ক থাকারও নির্দেশ দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

এ বিষয়ে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মুহাম্মদ ইউসুফ বলেন, বিষয়টি অনভিপ্রেত। প্রবাসিরা ঘামের টাকায় এয়ারলাইন্স থেকে সার্ভিস কিনে থাকেন। এয়ারলাইন্স সেই প্রতিশ্রুত সেবা দিতে বাধ্য। অন্যথায় দেশের প্রচলিত ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন প্রয়োগ করতে আমরাও বাধ্য।






মন্তব্য চালু নেই