মেইন ম্যেনু

লাদেনের মৃত্যুসংবাদ ওবামারও আগে পেয়েছিলেন ‘দ্য রক’, কিন্তু কীভাবে?

ডোয়েন জনসন ‘দ্য রক’ নামেই বেশি পরিচিত। ওই নামেই তিনি ডব্লিই ডব্লিউ ই বা পেশাদার রেসলিং-এর দুনিয়ায় বিখ্যাত। অভিনয় করেছেন বেশ কিছু হলিউড সিনেমাতেও। এমন ‘রক’-এর নাম অতি রহস্যজনকভাবে জড়িয়ে আছে ওসামা বিন লাদেনের হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে। কিন্তু কীভাবে?

১ মে ২০১১ তারিখে মার্কিন সময় বেলা ২টো ৪০ নাগাদ আল কায়দা নেতা লাদেন পাকিস্তানের অ্যাবটাবাদে তাঁর গুপ্ত আস্তানায় মার্কিন সেনাবাহিনীর হাতে নিহত হন। তার ঘন্টাখানেক বাদে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার কাছে খবর পৌঁছয় যে, লাদেনের বিরুদ্ধে অভিযান সফল হয়েছে। সন্ধে ৭টা নাগাদ ওবামাকে খবরটি সম্পর্কে সুনিশ্চিৎ করা হয়। রাত্রি ১১টা ৩৫-এ টিভিতে এই কথা আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করেন।

কিন্তু মজার বিষয় হল, রাষ্ট্রপতির এই ঘোষণারও অন্তত ১ ঘন্টা আগে রক একটি টুইট করেন। রাত ১০টা ২৪-এ করা সেই টুইটে ‘রক’ বলেন, ‘দুনিয়াকে কাঁপিয়ে দেওয়ার মতো একটি খবর পেলাম। মুক্ত মানুষের দেশ, সাহসী মানুষের দেশ— আমেরিকার বাসিন্দা হওয়ার কারণে আমি গর্বিত।’

বলাই বাহুল্য, এই টুইটের লক্ষ্য ছিল লাদেন-বিরোধী অভিযানের সাফল্য। কিন্তু প্রশ্ন হল, এহেন গোপনতম একটি সামরিক অভিযান— যার খবর উচ্চতম পদস্থ মার্কিন কর্মকর্তারাও অনেকে জানতেন না— তার সাফল্যের খবর ‘রক’ কীভাবে পেলেন?

এই প্রশ্নের কোনও সদুত্তর কোনওদিনই ‘রক’ দিতে পারেননি। তবে ‘রক’-এর এক দূর সম্পর্কের ভাই লাদেন-অভিযানের সদস্য ছিলেন। সম্ভবত তাঁর কাছ থেকেই লাদেনের মৃত্যুসংবাদ পেয়েছিলেন রক। কিন্তু সেই অনুমান সত্যি কি না তা আজও জানা যায়নি। -এবেলা






মন্তব্য চালু নেই