মেইন ম্যেনু

লামায় নিরাপত্তাহীনতায় বিএনপি’র মেয়র প্রার্থীর অভিযোগ

নিরাপত্তা ও সুষ্ট ভোট গ্রহণের আশংকা নিয়ে লামা রিটার্নিং অফিসারের কাছে বিএনপি প্রার্থীর লিখিত অভিযোগ করেন। ২৬ ডিসেম্বর শনিবার লামা পৌরসভা নির্বাচনে ধানের শীষ প্রতীকের বিএনপি’র মেয়র প্রার্থী আমির হোসেন এ অভিযোগ করে।

অভিযোগ থেকে জানা যায়, গত ২৪ ডিসেম্বর রাত ৮টার সময় নির্বাচনী প্রচার কাজের সময় ৯নং ওয়ার্ড হরিনঝিরি এলাকায় আওয়ামী লীগের প্রার্থী মোঃ জহিরুল ইসলামের লোকজন আমাদের উপর চড়াও হয়েছে। প্রতিটি ওয়ার্ডেই আমার কর্মী সমর্থকদের হুমকি ও ভয় ভীতি প্রদর্শন করা হচ্ছে।

বর্তমান অবস্থায় আমি নিরাপত্তাহীনতায় ভূগছি। শুধু তা নয় আমি প্রচারনার কাজে বাহির হইলে প্রতিদ্বন্ধি জহিরুল ইসলামের সমর্থক ৮-১০ জন মটর সাইকেল নিয়ে আমার পিছু নিয়ে ভয়ভীতি প্রদর্শন করেন, মোটর সাইকেল আরোহীদের অনেকে বহিরাগত। লামার বহিরাগত সন্ত্রাসী দিয়ে আমার নিজের ও আমার সমর্থক কর্মীদের যেকোন ধরনের ক্ষতি করতে পারে। চকরিয়া ও মহেশখালী থেকে বহিরাগত ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসীরা দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে রাতের বেলায় নির্বাচনী এলাকায় অবস্থান করে।

নিরাপত্তা চেয়ে ও সুষ্ট নির্বাচনের পরিবেশ তৈরি করার জন্য নির্বাচন কমিশন ও আইন প্রয়োগকারী সংস্থার কাছে জোরালো আবেদন করছি।

এছাড়া, নির্বাচন কমিশন ঘোষিত তফসীল অনুযায়ী নির্বাচনী প্রচারনা শুরু হওয়ার পর থেকে প্রতিদ্বন্ধী মেয়র প্রার্থী জহিরুল ইসলাম এর সমর্থক লোকজন আমাকে বিভিন্ন ভাবে হুমকি ও ভয়ভীতি প্রদর্শন করছে। আমার নির্বাচনী প্রচারনার কাজে নিয়োজিত লোকজনকে বিভিন্ন ধরনের হুমকি প্রদান করা হচ্ছে।

বিএনপি’র সমর্থক লোকজনকে নির্বাচনী প্রচারনায় বাধা প্রদান করা হচ্ছে। বিভিন্ন স্থানে লাঠি-সোঠা মজুদ করে আমার সমর্থকদের মারধর করার হুমকি প্রদান করা হচ্ছে।

লামা পৌরসভা নির্বাচন/২০১৫ এর রিটার্নিং অফিসার শফিকুর রহমান অভিযোগ প্রাপিÍর সত্যতা স্বীকার করে বলেন, নির্বাচনের আচরণ বিধি অমান্য করলে কাউকে ছাড় দেয়া হবেনা। অভিযোগ সমূহ তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।






মন্তব্য চালু নেই