মেইন ম্যেনু

লুটপাট করতেই গ্যাসের দাম বাড়ানো হচ্ছে : রিজভী

লুটপাট চালাতেই সরকার ফের গ্যাসের দাম বাড়ানোর উদ্যোগ নিয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। এই সিদ্ধান্তকে গণবিরোধী ও অযৌক্তিক আখ্যা দিয়ে তিনি বলেন, গ্যাসের দাম বাড়ানো হলে নিত্যপণ্যের দাম আরও বাড়বে।

সোমবার বেলা সোয়া ১১টায় নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন।

সরকার আগামী জানুয়ারি থেকে গ্যাসের দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এ ক্ষেত্রে আবাসিকে দুই চুলার গ্যাসের দাম ৬৫০ থেকে বাড়িয়ে এক হাজার এবং সিএনজির দাম ঘনমিটারে ৩৫ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৪৩ বা ৪৫ টাকা করা হতে পারে। একইভাবে বাড়নো হবে বাণিজ্যিক গ্যাসের দামও। এ নিয়ে ৯ মাসের মধ্যে দ্বিতীয় দফা দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিল সরকার।

রিজভী বলেন, সরকারের এই সিদ্ধান্ত হবে গণবিরোধী ও অযৌক্তিক এবং বেআইনি। তিনি বলেন, গ্যাসের দাম বৃদ্ধির মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে লুটপাট। সরকারি দল ও ক্ষমতাসীনদের স্বজনদের পকেট ভারী করার জন্যই এই সিদ্ধান্ত নেয়া হচ্ছে।

রিজভী বলেন, গ্যাসের দাম বাড়ালে বেড়ে যাবে মানুষের জীবন যাত্রার ব্যয়ভার। অতিষ্ঠ হবে জনজীবন। এই সিদ্ধান্ত ব্যবসা বাণিজ্যর প্রসারকে ব্যাহত করবে বলেও অভিযোগ করেন তিনি। বলেন, ‘শুধু তাই নয় এর প্রভাব সরাসরি পড়বে কৃষি উৎপাদনের ওপর।’

গ্যাসের দাম বৃদ্ধি হলে বিএনপি কোনো কর্মসূচি দেবে কি না এমন প্রশ্নে রিজভী বলেন, ‘দলীয়ভাবে সিদ্ধান্ত হলে জানানো হবে।’

সংবাদ সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন- বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আব্দুস সালাম, বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম আজাদ, সহ-দফতর সম্পাদক মুনির হোসেন, সহ-জলবায়ু বিষয়ক সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান বাবুল ও নির্বাহী কমিটির সদস্য আমিনুল ইসলাম প্রমুখ।






মন্তব্য চালু নেই