মেইন ম্যেনু

শরীফ রুমির পরিচালনায় ঈদে আসছে ‘এজাজের মেজাজ’

শরীফ রুমির পরিচালনায় ও রঞ্জন আকাশ রচনায় এবার ঈদে আসছে বিশেষ হাসির নাটক ‘এজাজের মেজাজ’। নাটকে বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন- মীর সাব্বির, তানজিকা আমীন, তারিক স্বপন, শিল্পী সরকার অপু , কাজী উজ্জ্বল, রাজু আহসান, লাবন্য বিন্দু প্রমুখ।

উত্তরার বিভিন্ন লোকেশনে সম্প্রতি নাটকটির শুটিং শেষ হয়েছে। এবারের ঈদে যেকোন চ্যানেলে দেখা যেতে পারে এই নাটকটি ।

নাটকের গল্পে দেখা যাবে- “এজাজ” একজন সৎ অফিস কর্মকর্তা । তার চরিত্রের মুল বৈশিষ্ঠ হচ্ছে সে কখনই মিথ্যা পছন্দ করে না, পুনরাবৃত্তি তার একদম পছন্দ না, যদি তার সামনে এসব ঘটে তখনই সে উত্তেজিত হয়ে যায়, মাথা গরম করে ফেলে, মেজাজ গরম হয়ে যায়, হাতের সামনে যা পায় ভাংচুর করে। এমনি ভাবে নাটকে দেখা যাবে, সে রিক্সাওয়ালার সাথে ঝগড়া বাঁধিয়ে দিচ্ছে , ডাক্তার এর সাথে ঝগড়া বাঁধিয়ে দেয়, অফিস কর্মকর্তার সাথে ঝগড়া বাঁধিয়ে দেয়, এজাজের মা তাকে বিয়ে দেবার জন্য উঠে পড়ে লাগে কিন্তু এজাজের এক কথা সে বিয়ে করবে না। তার মনে হয় বিয়ে হলেই এজাজের বৌ আর এজাজের মা ঝগড়া বাঁধাবে এবং অশান্তি হবে । যেহেতু মা’ও বিয়ের কথা বলে বার বার পুনরাবৃত্তি ঘটাচ্ছে তাই মায়ের সাথেও এজাজ ঝগড়া লেগে যায়। সে একটি বায়িং অফিসের চৌকস কর্মকর্তা, একই অফিসে সুন্দরি ইলা এজাজের মায়ের সাথে নানান পরিকল্পনা করে এজাজকে বিয়ে দিতে। নাটকে দেখা যাবে হাস্যরসের মধ্য দিয়ে ইলার বুদ্ধিতে এজাজের মা এজাজকে সংসারে স্ত্রীর ভূমিকা কত ! তা বুঝিয়ে দেয়ার জন্য এজাজের জুতা, মুজা লুকিয়ে রাখে যাতে অফিসে যেতে লেট হয়। একপর্যায়ে এজাজ বুঝতে পেরে বিয়ের জন্য রাজি হয়। সেই মোতাবেক বাসায় বিয়ের ঘটক আসে, কিন্তু ঘটক কিছুটা সত্য মিথ্যা বানিয়ে বলায় সে ঘটকের ওপর ক্ষিপ্ত হয়ে যায় এবং তাকে রাস্তা ঘাটে পেলেই ধাওয়া করে। নাটকের শেষের দিকে সে ইলার প্রেমে পড়ে যায়, এবং ইলা তাকে বোঝাতে সক্ষম হয় এবং সেও বুঝতে পারে ভালবাসাই মানুষকে পরিবর্তন করতে সক্ষম হয় । ভালোবাসাই পারে মানুষের খারাপ দিক গুলোকে পালটে ফেলতে। নাটকের শেষ দৃশ্যে দেখা যাবে এজাজের আকুতিতে ইলা সাড়া দেবে এবং প্রমিজ করবে তার মেজাজ এভাবেই ঠান্ডা রাখবে।

14081029_1078467402273696_2080234685_n (1)

এই নাটকের মূল মেসেজ হচ্ছে মানুষের উত্তেজিত, রাগ, ক্ষোভ, ক্রোধ এসবের কারনে কত ক্ষতি হতে পারে সেটা বোঝানো, আবার পাশাপাশি ভালোবাসাও যে কত শক্ত ভাবে এসবকে ছাপিয়ে সুন্দর একটি জীবন দিতে পারে সেটা বোঝানো ।






মন্তব্য চালু নেই