মেইন ম্যেনু

শরীরের এই একটি স্থানে চাপ দিলেই মন ভাল হয়ে যাবে, দূর হবে সমস্ত টেনশন…

কোনরকম কড়া ঔষধের বালাই ছাড়াই শরীরের নানাবিধ রোগ আর সমস্যাকে সারিয়ে তোলার অনেক অদ্ভূত অদ্ভূত উপায় আবিষ্কার করেছে চীনা চিকিৎসকেরা সেই প্রচীনকাল থেকে। আকুপাংচার থেকে শুরু করে সেই চিকিৎসাপদ্ধতি যে কত বিস্তার লাভ করেছে তার কোন সঠিক হিসেব নেই। তবে আজকে আকুপাংচার নয়, বলব চীনাদের উদ্ভাবিত আরেকটি অসম্ভব কাজের পদ্ধতি। আর পদ্ধতিটি হচ্ছে শরীরের কিছু অংশে চাপ প্রয়োগ করে মনের সমস্ত উদ্বিগ্নতা দূর করা। মনকে হাসিখুশি করে তোলা। চীনা চিকিৎসকদের মতে এমনটা সত্যিই সম্ভব। প্রতিটি মানুষের শরীরেই এমন কিছু স্থান আছে যেগুলোকে চাপ প্রয়োগ করলে তার ভেতরে উদ্দীপনা আর হাসিখুশি ভাব ফিরে আসে। আর আমাদের শরীরের ভেতরে এমন মোট ১২ টি স্থান চিহ্নিত করেছেন এখন পর্যন্ত তারা। যেগুলোর ভেতরে ঠিক বুকের মাঝামাঝি একটি স্থানে হালকা চাপ প্রয়োগ মানুষের সমস্ত উদ্বিগ্নতা আর চিন্তাকে দূর করে দেয় বলে মনে করা হয়।

আকুপাংচারের মতন নয়, তবে এই চাপ প্রয়োগের বিষয়টিকে সবাই জানে আকুপ্রেশার নামে। সিভি ১৭ কে তাক করে প্রয়োগ করা হয় এই পদ্ধতিটি। এই সিভি ১৭ হচ্ছে কনসেপশন ভেসেল বা বুকের মাঝখানটা। চীনা ধারণানুসারে, হৃদপিন্ড হচ্ছে আমাদের সমস্ত আবেগের কেন্দ্রবিন্তু। তাই খুব বেশি চিন্তা বা উদ্বিগ্নতায় থাকলে এর প্রভাব পড়ে আমাদের বুকের ঠিক মাঝটায়। কালশিটে পর্যন্ত পড়তে দেখা যায় এখানে।

আকুপ্রেশারে বিশ্বাসীদের মতে, শরীরের উপরের অংশের মাঝ বরাবর অবস্থিত হওয়ায় এই স্থানটি আমাদের শরীর ও মনে একইসাথে উদ্দীপনা ও শান্তি তৈরি করে। দুটোর সমতা বজায় রাখতে বিশেষ ভূমিকা রাখে এই স্থান। তাই এই স্থানে চাপ প্রয়োগ করলে আমাদের ভেতরে উত্তেজনা ও শান্তি ফিরে আসতে বাধ্য।

সিভি ১৭ খুঁজবেন যেভাবে

বুকের মাঝখানের হার যেখানে শেষ হয়েছে তার থেকে ওপরে চার আঙ্গুল দূরত্বে আপনি সিভি ১৭কে খুঁজে পাবেন। বুকের প্রায় মাঝামাঝি স্থানে অবস্থিত এটি। চীনা চিকিৎসকেদের কাছে যেটা সি অব ট্রাঙ্কুইলিটি নামেও পরিচিত। স্থানটি খুঁজে পাওয়ার পর প্রথমে উপরে-নীচে আঙ্গুল বুলাতে থাকুন। এরপর সোজাভাবে বসে থেকে আঙ্গুল নির্দিষ্ট স্থানের ওপর রেখে উপরের দিকে নিয়ে যান।

এবার ধীরে ধীরে সিভি ১৭ এর ওপর পরপর তিনবার আঙ্গুল দিয়ে চাপ দিন। এসময় চোখ বন্ধ আর মেরুদন্ড সোজা রাখুন। জোরে জোরে নিশ্বাস নিন আর বের করে দিন। এতে করে গভীর শ্বাস নেওয়ার কারণে আপনার ভেতরে এক ধরণের প্রশান্তি কাজ করবে। সেইসাথে সিভি ১৭ তে প্রয়োগ করা চাপ দূর করে দেবে উদ্বিগ্নতাকে।






মন্তব্য চালু নেই