মেইন ম্যেনু

শরীরে কি বাসা বেঁধেছে গোপন রোগ? বলে দেবে শরীরের আকৃতি…

শরীরের আকৃতিগত কিছু বৈশিষ্ট্য, যেমন বুকের মাপ, কোমরের আয়তন বা পায়ের দৈর্ঘ্য থেকেও বোঝা যেতে পারে কারও শরীরের ভিতরের রসায়ন। কীরকম? আসুন, জেনে নেওয়া যাক—

চিকিৎসাবিজ্ঞানে বলা হয়, শরীরের অভ্যন্তরীণ অবস্থার প্রতিফলন ঘটে শরীরের বাইরেও। শরীরের ভিতরে কোনও রোগ বাসা বাঁধলে তার নানা উপসর্গ শরীরের বাইরেও দেখা দেয়। এমনকী ক্যানাডিয়ান জার্নাল অফ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশন-এর একটি সমীক্ষা থেকে জানা যাচ্ছে, শরীরের আকৃতিগত কিছু বৈশিষ্ট্য, যেমন বুকের মাপ, কোমরের আয়তন বা পায়ের দৈর্ঘ্য থেকেও বোঝা যেতে পারে কারও শরীরের ভিতরের রসায়ন। কীরকম? আসুন, জেনে নেওয়া যাক—

আঙুলের দৈর্ঘ্য:
মহিলাদের মধ্যে যাঁদের তর্জনীটি মধ্যমার তুলনায় ছোট, তাঁদের বয়সকালে অস্টিওআর্থারাইটিসে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা থাকে বেশি। সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, ক্ষুদ্রতর তর্জনীসম্পন্ন মহিলাদের শরীরে ইস্ট্রোজেন হরমোনের ক্ষরণ হয় অপেক্ষাকৃত কম পরিমাণে। সেই কারণেই কালে কালে তাঁদের অস্টিওআর্থারাইটিসের মতো হাড়ের রোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা থাকে বেশি। এই রোগকে প্রতিরোধ করতে হলে, অল্প বয়স থেকেই হাড়ের ব্যায়ামের উপর জোর দিতে হবে।

পায়ের দৈর্ঘ্য:
যাঁদের পায়ের দৈর্ঘ্য ক্ষু‌দ্রতর তাঁদের লিভারের রোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা থাকে বেশি, এমনটাই বলা হচ্ছে সমীক্ষায়। মহিলাদের মধ্যে যাঁদের পায়ের দৈর্ঘ্য ৫০ থেকে ৭৩ সেমির মধ্যে তাঁদের শরীরে লিভার এনজাইমের পরিমাণ হয় বেশি। এ থেকে কালক্রমে লিভারের সমস্যা দেখা দিতে পারে।

ব্রা-এর সাইজ:
সমীক্ষার ফলাফলে দেখা গিয়েছে, ২০ বছরের আশেপাশে বয়স যেসব মহিলার এবং যাঁরা ‘ডি’ বা তার চেয়ে বড় সাইজের ব্রা পরেন, তাঁদের শরীরে ডায়াবেটিস টাইপ টু বাসা বাঁধার সম্ভাবনা থাকে বেশি। এর কারণ হিসেবে বলা হচ্ছে, আকারে বড় যাঁদের স্তন, তাঁদের স্তনের ফ্যাট টিস্যুগুলি শরীরে ইনস্যুলিন প্রতিরোধের ক্ষমতা কমায়। পরিণামে ডায়বেটিস হওয়ার সম্ভাবনা বৃদ্ধি পায়।






মন্তব্য চালু নেই