মেইন ম্যেনু

শরীর থেকে মৃত চামড়া দূর করুন ৫টি ঘরোয়া উপায়ে

আমাদের দেহের বিশাল অংশ জুড়ে রয়েছে ত্বক। প্রতিনিয়ত চামড়া মারা যাচ্ছে এবং সেখানে নতুন নতুন চামড়া তৈরি হচ্ছে। এই প্রক্রিয়াটি ত্বক সুস্থ এবং সতেজ রাখে। ত্বকের বয়স ধরে রাখার জন্য এই মৃত কোষ দ্রুত দূর করা উচিত। শুধুমাত্র গোসল মৃত কোষ দূর করার জন্য যথেষ্ট নয়। এর জন্য প্রয়োজন এক্সফলিয়েটের। সপ্তাহে একবার ত্বক এক্সফলিয়েট করুন। এটি মৃত ত্বক দূর করে নতুন ত্বক সৃষ্টি করতে পারে। ঘরোয়া কিছু প্যাক যা মৃত ত্বক দূর করতে বেশ কার্যকর।

১। ওটমিল

দুই টেবিল চামচ ওটমিল, দুই টেবিল চামচ টকদই এবং এক টেবিল চামচ মধু একসাথে মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে নিন। এই প্যাকটি ত্বকে চক্রাকারে ম্যাসাজ করে লাগান। ১০-১৫ মিনিট পর ঠান্ডা পানি দিয়ে ত্বক ধুয়ে ফেলুন। এরপর ভাল মানের কোন ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করুন।

এছাড়া দুই টেবিল চামচ ওটমিল, দুই বা তিন চা চামচ মধু এবং দুই চা চামচ লেবুর রসের সাথে সামান্য পানি মিশিয়ে নিন। এই প্যাকটি ত্বকে ম্যাসাজ করে লাগান। ১০ মিনিট পর পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন।

২। অলিভ অয়েল এবং চিনি

আধা কাপ চিনির সাথে দুই বা তিন টেবিল চামচ অলিভ অয়েল মিশিয়ে নিন। এরসাথে দুই বা তিন টেবিল চামচ লেবুর রস মেশান। এই প্যাকটি ত্বকে স্ক্রাবের মত ব্যবহার করুন। তারপর কুসুম গরম পানি দিয়ে ত্বক ধুয়ে ফেলুন।

৩। মুসরি ডালের স্ক্রাব

দুই টেবিল চামচ মুসরি ডালের গুঁড়োর সাথে মধু বা দুধ মিশিয়ে নিন। এটি ত্বকে গোসলের আগে ম্যাসাজ করে লাগান। ১৫-২০ মিনিট পর গোসল করে ফেলুন।

এছাড়া মুগ ডালের গুঁড়োর সাথে, এক চুর্থাংশ চালের গুঁড়ো, হলুদ এবং দুধ মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করুন। এই প্যাকটিও ত্বকে ম্যাসাজ করে লাগান। মুগ ডাল ব্যবহারের আগে রোদে শুকিয়ে নিয়ে, তারপর গুঁড়ো করবেন।

৪। কফি

তিন টেবিল চামচ কফির গুঁড়ো, এক টেবিল চামচ অলিভ অয়েল অথবা বাদাম অয়েল, এক টেবিল চামচ মধু এবং এক টেবিল চামচ চিনির গুঁড়ো মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করুন। এই প্যাকটি ত্বকে, বিশেষ করে হাঁটু, ঘাড়, হাতের কনুইতে ম্যাসাজ করে লাগান। তারপর কুসুম গরম পানি দিয়ে ত্বক ধুয়ে ফেলুন। এটি সপ্তাহে একবার ব্যবহার করুন।

৫। চালের গুঁড়ো এবং গোলাপ জল

চালের গুঁড়োর সাথে টকদই এবং দুই ফোঁটা গোলাপ জল মিশিয়ে প্যাক তৈরি করুন। এই প্যাকটি ত্বকে ম্যাসাজ করে লাগান। শুকিয়ে গেলে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এই প্যাকটি ত্বকে সপ্তাহে একবার ব্যবহার করুন।






মন্তব্য চালু নেই