মেইন ম্যেনু

শর্টসার্কিট দূর করার উপায়

এখন প্রযুক্তির যুগ। তাই স্বাভাবিকভাবেই বিভিন্ন ইলেকট্রনিক পণ্যের ব্যবহার এখন বেশি। সুতরাং বিদ্যুতিক শর্টসার্কিটের ব্যাপারে এখন আরো বেশি সাবধান থাকা প্রয়োজন।

কেননা শর্টসার্কিটের কারণে জিনিপত্রের যেমন ক্ষতি হয়, তেমনি অনেক সময় ভয়াবহ আগুন লেগে মৃত্যু ঝুঁকিও থাকে। শর্টসার্কিটের বিপত্তি এড়িয়ে চলতে খেয়াল রাখুন কিছু বিষয়।

* সবার প্রথম দরকার, বাড়ির ইলেকট্রিক ওয়্যারিং দেখে নেওয়া। কেননা একবার বাড়িতে ইলেকট্রিক ওয়্যারিং করালে যে, তা আজীবন ঠিক থাকবে, এমনটা নাও হতে পারে।

* বাড়ির ইলেকট্রিক লাইন করার সময়, খরচের কথা ভেবে কৃপণতা না করাই ভালো। বরং দামি ও ভালো কোয়ালিটির তার ব্যবহার করা জরুরি। তাতে শর্টসার্কিটের সম্ভাবনা এড়িয়ে চলতে পারবেন।

* মিক্সার, এয়ার কুলার, ওয়াশিং মেশিন, জলের পাম্প ও অন্যান্য ইলেকট্রনিক গ্যাজেট ব্যবহারের আগে ভালো করে দেখে নিন, সেগুলো ক্রটিপূর্ণ কিনা।

* অনেক সময় অতিরিক্ত তাপের কারণে ইলেকট্রিকের তার পুড়ে ও গলে যায়। এর কারণে শর্টসার্কিট হতে পারে। এ ধরনের ক্ষেত্রে তার জোড়াতালি না দিয়ে নতুন তার লাগিয়ে দিন।

* অনেকেই বাড়িতে টেম্পোরারি ইলেকট্রিক তার লাগিয়ে রাখেন রান্নাঘরে ও বাথরুমে। কোনো কারণে তার কেটে গেলে বিপদের সম্ভাবনা থাকে। তাই বাড়িতে এদিক-ওদিক ইলেকট্রিকের তার রাখবেন না।

* ইলেকট্রিক গ্যাজেটে কোনো সমস্যা দেখা গেলে সার্ভিস সেন্টারে নিয়ে যান। নিজে ইক্সপেরিমেন্ট করতে না যাওয়াই ভালো।

* রান্নাঘরের এদিক-ওদিক পানি পড়ে থাকে। তাই মিক্সার গ্রাইন্ডার বা অন্যান্য ইলেকট্রনিক গ্যাজেট ব্যবহার করার সময় সাবধান থাকুন। পানি লাগার কারণেও শর্টসার্কিট হতে পারে।

* ইলেকট্রনিক জিনিসপত্র ব্যবহারের পর সুইচ অফ করে দিন। প্লাগটিও খুলে রাখুন। তাতে বিপত্তি এড়িয়ে চলতে পারবেন।






মন্তব্য চালু নেই