মেইন ম্যেনু

শার্টের দামে হতবাক পরিনীতি!

ইন্দোনেশিয়ার কারেন্সি নিয়ে প্রচলিত একটা কথা আছে, ‘বাজার করতে যেতে হয় সেখানে ব্যাগ ভর্তি টাকা নিয়ে, আর জিনিষ কিনে ফিরতে হয় অর্ধেক ব্যাগ নিয়ে’! তো এমন কথার সত্যতা পাওয়া গেল বলিউড অভিনেত্রী পরিনীতি চোপড়ার ক্ষেত্রে! শার্টের দাম শুনে হতবাক পরিনীতি!

সম্প্রতি ইন্দোনেশিয়ার জাকার্তায় গিয়েছিলেন বলিউডের আবেদনময়ী অভিনেত্রী পরিনীতি চোপড়া। আর সেখানে গিয়ে ফেরার সময় একটি শপিং মল থেকে পছন্দসই দুটি শার্ট কিনেছিলেন নিজের জন্য। কিন্তু দাম শুনেইতো হতবাক পরিনীতি! দুই শার্টের দাম ১০ লক্ষ টাকা! তারপর বুঝলেন, ওহ এটাতো ইন্দোনেশিয়া! তারপর নিজের দেশের মাত্র সাড়ে চার হাজার রূপি দিয়ে দোকানিকে শার্টের মূল্য পরিশোধ করলেন তিনি।

মানে বিষয়টি হচ্ছে, ইন্দোনেশিয়ার ১০ লক্ষ রূপির সমান ভারতের মাত্র চার হাজার রূপি। পৃথিবীর মধ্যে মুদ্রার মান সবচেয়ে এখানেই। সাধেই কি লোকে বলে, ইন্দোনেশিয়ায় একটি দেশলাই কিনলেও হাজার খানেকের বেশী টাকা লাগে!

বলিউডের আবেদনময়ী অভিনেত্রী পরিনীতি চোপড়া বর্তমানে একটি গ্ল্যামার ম্যাগাজিনের প্রচ্ছদ কন্যার শ্যুটিংয়েই গিয়েছিলেন ইন্দোনেশিয়া। আর সেখানের একটি শপিংমলে গিয়ে এমন অবস্থার মুখোমুখি হন। শপিংমলের এই মুহূর্তটা ক্যামেরাবন্দিও করেছিলেন তিনি। পরবর্তীতে তার নিজের ফেসবুকে সেই ছবিটি প্রকাশ করলে প্রায় তিনলাখের মত মানুষ ছবিটিকে লাইক করেন। এবং এমন অবস্থা নিয়ে ভক্ত অনুরাগীদের মধ্যে হাসির রোল খেলে যায়।

উল্লেখ্য, ‘লেডিস ভার্সেস রিকি ভাই’ ছবির মধ্য দিয়ে বলিউডে অভিষিক্ত পরিনীতি চোপড়াকে শেষ বড় পর্দায় দেখা গিয়েছিল গত বছর ‘কিল দিল’ ছবিতে। এছাড়াও ইশাকজাদে, শুদ্ধ দেশি রোমান্স, হাসে তো ফাসে এবং দাওয়াতে ইশক ছবিতে অভিনয় করে নিজের সামর্থ জানান দিয়েছেন।






মন্তব্য চালু নেই