মেইন ম্যেনু

শাহজালালে বোমা তৈরির সরঞ্জাম সন্দেহে পার্সেল জব্দ

শাহজালালে সন্ত্রাসবিরোধী অভিযানে (আইরিন) বোমা তৈরির সরঞ্জাম সন্দেহে কুরিয়ারের একটি পার্সেল জব্দ করেছে শুল্ক গোয়েন্দারা।

বুধবার বিকেলে তথ্যটি নিশ্চিত করেন শুল্ক গোয়েন্দা বিভাগের যুগ্ম পরিচালক মুহম্মদ সফিউর রহমান।

তিনি বলেন, সকালে বিমানবন্দরের কুরিয়ার গেট দিয়ে খালাসের সময় একটি পার্সেল জব্দ করা হয়েছে। ডকুমেন্ট ঘোষণায় এবং শুল্কায়িত ২.৫ কেজির পার্সেলটি সন্দেহজনক হওয়ায় এটি তল্লাশি করা হয়।

তিনি আরো বলেন, তল্লাশিতে পার্সেলের ভেতর বিভিন্ন সার্কিট, বোর্ড, ব্রিজ ও তার এলোমেলো অবস্থায় পাওয়া যায়। তাৎক্ষণিক জিজ্ঞাসাবাদ করলে বহনকারী সিএন্ডএফ এজেন্ট তমা ট্রেডের প্রতিনিধি কোনো সদুত্তর দিতে পারেনি। বিভিন্ন সংস্থার মতামত নিয়ে বোমা তৈরির সরঞ্জাম হিসেবে ব্যবহার হতে পারে সন্দেহে পার্সেলটা আটক করে কাস্টমস গুদামে জমা দেয়া হয়।

শুল্ক গোয়েন্দা সূত্রে জানা যায়, পার্সেলটা গত ৩ জুলাই টিজি-৩২১ নম্বর ফ্লাইটে এসসিএস এক্সপ্রেসের মাধ্যমে শাহজালালের ফ্রেইট ইউনিটে আসে । পণ্যটি ডকুমেন্ট হিসেবে মিথ্যা ঘোষণায় বি/ই দাখিল করে খালাস নেয়ার চেষ্টা করা হয়েছিল। পণ্যটি চট্টগ্রামের একটি গার্মেন্টস ফ্যাক্টরির নামে আসে৷ মিথ্যা ঘোষণার বিষয়ে প্রতিষ্ঠান থেকে গ্রহণযোগ্য কোন ব্যাখ্যা না পাওয়ায় সরঞ্জামাদি আটক দেখানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ৮ জুলাই থেকে বিভিন্ন সংস্থার সমন্বয়ে শুল্ক গোয়েন্দার পক্ষ থেকে সারা দেশের বন্দরসমূহে সন্ত্রাসবিরোধী বিশেষ অভিযান ‘আইরিন’ পরিচালনা করছে। বিশেষ করে পার্সেলের মাধ্যমে অবৈধভাবে হাল্কা অস্ত্র, বিস্ফোরক ও মাদক প্রতিরোধই এই অভিযানের মূল উদ্দেশ্য। এই অভিযান এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চলে অন্যান্য দেশেও একযোগে পরিচালিত হচ্ছে।






মন্তব্য চালু নেই