মেইন ম্যেনু

শিক্ষককে হত্যাচেষ্টা: ফাহিমের ১০ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর

মাদারীপুর সরকারি নাজিমউদ্দিন বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের গণিত বিভাগের প্রভাষক রিপন চক্রবর্তীকে হত্যাচেষ্টার ঘটনায় গ্রেপ্তার গোলাম ফায়জুল্লাহ ফাহিমের ১০ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

শুক্রবার দুপুরে মাদারীপুর জেলা ও দায়রা জজ আদালতে ফাহিমকে উপস্থাপন করে ১৫ দিন রিমান্ডের আবেদন করে পুলিশ। শুনানি শেষে বিচারিক হাকিম মো. সাইদুর রহমান ১০ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

এর আগে গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে ফাহিমসহ ছয়জনের নাম উল্লেখ করে মাদারীপুর সদর থানায় হত্যাচেষ্টার একটি মামলা দায়ের করা হয়। মামলায় নাম উল্লেখ থাকা অন্য আসামিরা হলেন তাকসিন সামলাম ওরফে সামিল (২০), শাহরিয়ার হোসেন পলাশ (২০), মেজবাহ (১৯), রায়হান (২০) ও জাহিন (২০)। এ ছাড়া মামলায় অজ্ঞাত একাধিক আসামি করা হয়েছে।

মাদারীপুর সদর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আইয়ুব আলী বাদী হয়ে মামলাটি করেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জিয়াউল মোর্শেদ জানান, মামলায় থাকা আসামিদের গ্রেপ্তারের জোর চেষ্টা করা হচ্ছে। এরই মধ্যে গ্রেপ্তার ফাহিমের কাছ থেকে নিষিদ্ধঘোষিত বিভিন্ন সংগঠনের সঙ্গে সম্পৃক্ততার বিষয় জানা গেছে। এসব তথ্য যাচাই-বাছাই করা হচ্ছে।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, কলেজশিক্ষকের ওপর হামলার ঘটনায় আটক ফাহিমকে নিয়ে বুধ ও বৃহস্পতিবার দুদিন কয়েক দফা অভিযান চালানো হয়েছে। এতে বিশেষ কোনো তথ্য বেরিয়ে আসেনি। তবে অভিযান অব্যাহত রয়েছে। এ ঘটনায় মাদারীপুর সদর থানা থেকে ১২ সদস্যের একটি দলসহ একাধিক গোয়েন্দা সংস্থা মাঠে কাজ করছে।

গত বুধবার বিকেলে মাদারীপুরের সরকারি নাজিমউদ্দিন বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের সামনে কলেজের প্রভাষক রিপন চক্রবর্তীর নিজ ভাড়া বাসায় হামলা চালায় তিন দুর্বৃত্ত। এ সময় ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাঁকে কুপিয়ে জখম করে পালিয়ে যায় তারা। পালিয়ে যাওয়ার সময় ফায়জুল্লাহ ফাহিমকে আটক করে থানায় সোপর্দ করেন স্থানীয় লোকজন।






মন্তব্য চালু নেই