মেইন ম্যেনু

‘শিক্ষকদের ওপর হামলাকারীরা ছাত্র নয়, সন্ত্রাসী’

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) প্রাক্তন ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক এমাজউদ্দীন আহমদ বলেছেন, ছাত্র নামধারী জয় বাংলা স্লোগান দিয়ে যারা শিক্ষকদের ওপর হামলা করে তারা ছাত্র নয়, সন্ত্রাসী। এর নিন্দার ভাষা নেই। এটা পুরো জাতির লজ্জা। সরকারের পক্ষ থেকেও কোনো নিন্দা জানানো হয়নি, যা দুঃখজনক।

সোমবার দুপুরে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাগর-রুনি মিলনায়তনে সাংবাদিক ও জাতীয় প্রেসক্লাবের প্রাক্তন সভাপতি শওকত মাহমুদসহ পেশাজীবী নেতৃবৃন্দের মুক্তির দাবিতে পেশাজীবী সমাবেশে বক্তারা এসব কথা বলেন।

অধ্যাপক এমাজউদ্দীন আহমদ পুলিশের কর্মকর্তাদের উদ্দেশে বলেন, ‘আপনারা জনগণের সেবক, সরকারের নয়। সাধারণ মানুষের টাকায় আপনাদের বেতন হয়। তাই আপনাদের মধ্যে দায়িত্ববোধ তৈরি হতে হবে। যখন সিলেট শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষকদের ওপর সন্ত্রাসীরা হামলা করে, তখন আপনারা কোথায় ছিলেন?’

তিনি বলেন, “যে সমাজ শিক্ষকদের সম্মান করতে জানে না, সে সমাজের অবনতি সর্বনি¤œ পর্যায়ে অবস্থান করছে। আমার নিজেকে শিক্ষক বলতে লজ্জা লাগছে। একটি সরকার ততদিনই চলতে পারে, যতক্ষণ জনগণ জুলুম নির্যাতন সহ্য করতে পারে। এই জনগণকে ‘আর সহ্য করব না’ স্লোগানে রাস্তায় নেমে আসতে হবে।”

তিনি আরো বলেন, এ দেশে সরকারি কর্মকর্তাদের যেভাবে ব্যবহার করা হচ্ছে, এটা পৃথিবীর আর কোথাও নেই। শিক্ষক-সাংবাদিকের ওপর যেভাবে নির্যাতন করা হচ্ছে, তার নিন্দার ভাষা নেই। মাহমুদুর রহমানের মতো সাংবাদিকের ওপর যে অমানুষিক নির্যাতন চলছে, তা নিন্দনীয়। বর্তমান সরকার আইনগতভাবে বৈধতা দাবি করলেও তারা নীতি নৈতিকতার কাছে নেই।’

সাংবাদিক রুহুল আমিন গাজীর সভাপতিত্বে আরো বক্তব্য রাখেন গণস্বাস্থ্যের প্রতিষ্ঠাতা জাফর উল্লাহ চৌধুরী, ড্যাবের মহাসচিব অধ্যাপক এ জেড এম জাহিদ হোসেন, কবি ফারুক মাজহার প্রমুখ।






মন্তব্য চালু নেই