মেইন ম্যেনু

শিক্ষা ক্যাডারে পদোন্নতি জটিলতা

বিসিএস সাধারণ শিক্ষা ক্যাডারে দীর্ঘদিন ধরে পদোন্নতি বন্ধ। ফলে প্রতিদিন অগণিত শিক্ষক চোখের পানি ফেলে চরম হতাশা ও দুঃখ ভারাক্রান্ত মন নিয়ে সহযোগী অধ্যাপক পদ থেকে অবসর গ্রহণ করতে বাধ্য হচ্ছেন। অথচ অন্যান্য ক্যাডারে নিয়মিত পদোন্নতি হচ্ছে। শিক্ষা ক্যাডারে পদোন্নতি বন্ধ থাকার কারণ হল কিছু জুনিয়র শিক্ষক কর্তৃক অযৌক্তিক আত্মঘাতী মামলা। মানুষ গড়ার কারিগর সিনিয়র শিক্ষকরা এখনও সহযোগী অধ্যাপক এবং তাদের ছাত্ররাও সহযোগী অধ্যাপক। বেতন উভয়ের সমান, কোনো কোনো ক্ষেত্রে জুনিয়রদেরই বেশি। ফলে একই কলেজে অনুরূপ দুজন কর্মরত থাকলে সিনিয়ররা চরম অস্বস্তির মধ্যে চাকরি করতে বাধ্য হন।
উল্লেখ্য, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগে ৭ম বিসিএসের মাধ্যমে নিয়োগপ্রাপ্ত মাত্র পাঁচজন পদোন্নতি পাননি, অথচ সমগ্র দেশে রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিষয়ে ৩০-৩৫টি প্রফেসরের পদ শূন্য। অন্যান্য বিষয়েও একই অবস্থা। প্রফেসরের অনেক পদ শূন্য আছে। ফলে শিক্ষা কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে। মামলা জটিলতায় পদোন্নতি বন্ধ থাকায় ৭ম বিসিএসের মাধ্যমে নিয়োগপ্রাপ্ত অগণিত শিক্ষক প্রতিদিন সহযোগী অধ্যাপক পদ থেকে পিআরএলএ যাচ্ছেন।
সাধারণ শিক্ষক, শিক্ষক সমিতি কর্তৃক সবাই আন্তরিকভাবে কামনা করে জরুরি ভিত্তিতে পদোন্নতি সমস্যার সমাধান হোক। যারা মামলা করেছেন অতি জরুরি ভিত্তিতে অযৌক্তিক মামলা তুলে নেবেন এটাই সবার কাম্য।
প্রধানমন্ত্রী, শিক্ষামন্ত্রী, শিক্ষা সচিব, মহাপরিচালক মাউসির কাছে বিনীত আবেদন, বিষয়টি সমাধান করে দ্রুত পদোন্নতির ব্যবস্থা করুন।
প্রভাত কুমার রায়
সহকারী অধ্যাপক, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগ
সিরাজগঞ্জ সরকারি কলেজ





মন্তব্য চালু নেই