মেইন ম্যেনু

শিশুকে লবণ খাইয়ে মারলেন মা!

২৩ বছর বয়সী কিমবারলি মার্টিন তার ১৭ মাসের ছোট্ট শিশু পেটনকে লবণ খাইয়ে মাড়লেন। গত বুধবার দক্ষিণ ক্যারোলিনায় এই মর্মান্তিক ঘটনা ঘটে।গত রবিবার অতিরিক্ত খিঁচুনি শুরু হলে শিশুটিকে হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়।

শিশুটির মৃত্যুর পর তার মায়ের উপর মামলা দায়ের করা হয়েছে। উকিল জানায়, মূলত স্বামীর দৃষ্টি আকর্ষণের জন্য তিনি এই কাজ করেছেন। সে তার স্বামীকে আবার নিজের জীবনে ফিরে পেতে চান।

শিশুটিকে প্রথমে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছিল। কিন্তু ডাক্তার তখনি তাকে ক্লিনিকেলি মৃত বলে ঘোষণা করেছিল। এরপর সে অবস্থা থেকে আর বেঁচে ফিরতে পারেনি শিশুটি।

পেটনের পরিবার ইতিমধ্যে তার শেষকৃত্য সম্পন্ন করেছেন। তারা জানায়, পেটন খুব শান্ত মেয়ে ছিল। বেশি কান্নাকাটি করত না এবং সবসময় হাসিখুশি থাকত।

ছোট্ট শিশুদের জন্য লবণ বিষের মত কাজ করে। কারণ তাদের কিডনি তখন পর্যাপ্ত শক্তিশালী হয় না। এতে করে অতিরিক্ত লবণ খাওয়ার ফলে কিডনি ঝলসে যায়। পেটনের মৃত্যু সেভাবেই হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

পেটনের মা যদি এই মৃত্যুর জন্য দায়ী হয়ে থাকে এবং তাকে যদি দোষী সাব্যস্ত করা হয় তাহলে ২০ বছরের কারাদণ্ড ভোগ করতে হবে তার।






মন্তব্য চালু নেই