মেইন ম্যেনু

শিশুদের জন্য প্রিন্স জর্জের পোশাক

বৃটিশ রাজ পরিবারের প্রদীপ প্রিন্স জর্জ। তার জন্য পোশাক তৈরি করেন বৃটেনের বিখ্যাত ডিজাইনার র্যাচেল রিলে। যুগ পেরিয়ে গেলেও সাধারণ প্রিন্ট, হালকা ডিজাইন ও আরামদায়ক পোশাক তৈরি করেই ডাচেস অব কেমব্রিজ কেট মিডলটনের মন জয় করেছেন তিনি। অবশ্য এটাই তো স্বাভাবিক। প্রিন্সেস ডায়নার পরামর্শ অনুযায়ী তিনিই রাজ পরিবারের শিশুদের জন্য পোশাক তৈরি করছেন প্রায় ৩০ বছর ধরে।

র্যাচেল রিলে সম্প্রতি সকলের জন্য উন্মুক্ত করেছেন প্রিন্স জর্জের মত পোশাক। আর সাধারণ মানুষও নিজের সন্তানকে রাজপুত্র সাজাতে দ্বিধা করেননি, একঘন্টার ব্যবধানেই শেষ হয়ে যায় তার কালেকশন। অবশ্য তিন সপ্তাহ থেকেই বিজ্ঞাপণ চলেছে- সকলের জন্য উন্মুক্ত হচ্ছে প্রিন্স জর্জের জন্য তৈরি পোশাকের সংগ্রহ। আর তাই পাল্টে গেছে ফ্যাশন সচেতনতার সংজ্ঞা।

ra60v9a

উজ্জ্বল রঙের শর্টস এবং তার সঙ্গে মানানসই হালকা টপস- শিশুদের জন্য আরামদায়ক হলেও বর্তমান সময়ের সঙ্গে তাল মেলানো যায় না। তাও আবার রাজ পরিবারের প্রাণ প্রদীপ বলে কথা! তবে মায়ের পছন্দ ও নির্ভরযোগ্য ডিজাইনার র্যাচেল রিলের পরামর্শ অনুযায়ী এমন পোশাকেই দেখা যায় প্রিন্স জর্জকে। আর রাজপুত্র বলে কথা, তাকে তো সাধারণ মানুষ অনুসরন করবেই। আর তাই সময়ের স্রোত উল্টে যাওয়া অস্বাভাবিক নয়।

সাক্ষাৎকারে র্যাচেল রিলে জানিয়েছেন তার ডিজাইনের পিছনের কথা এবং প্রিন্সেস ডায়ানার সঙ্গে নানা আলোচনার কথা। ‘প্রিন্সেস ডায়নার ফ্যাশন সচেতনতা নিয়ে নতুন করে বলার কিছু নেই, আজও তার অত্যাআধুনিক মানসিকতা বিমূর্ত সকলের হৃদয়ে। তিনিই মুলত ডিজাইন নিয়ে নানা পরামর্শ দিতেন। প্রিন্স উইলিয়াম এবং প্রিন্স হ্যারির জন্য পোশাক ডিজাইন করার সময় তার সঙ্গে আলোচনা করে নিতাম আমি।’

tpPTXXN

যেহেতু রাজ পরিবারের ব্যক্তিরা কোন লোগাে বসানো পােশাক ব্যবহার করে না, তাই বিশেষ ডিজাইনে তৈরি হয় সকলের পোশাক। আর শিশুদের জন্য র্যাচেল রিলে তো আছেনই। প্রিন্স জর্জের জন্য পোশাক তৈরিতে সহায়তা করেছে পূর্বের অভিজ্ঞতা। ‘আমি পুরানো অ্যালবাম ঘেটে প্রিন্স উইলিয়াম আর প্রিন্স হ্যারির ছবি বের করে দেখেছি। তারপর প্রিন্স জর্জের পোশাক তৈরি করেছি। রাজ পরিবারের ডিজাইনে পোশাক প্রতি বছর প্রায় ৩০ লাখ টাকায় বিক্রি হয়, দিন দিন এই পরিমান বাড়ছে। তবে মধ্যবিত্ত পরিবারের সামর্থের মধ্যেই থাকে পোশাকের দাম। ডাচেস অব কেমব্রিজ কেট মিডলটনও অামায় ডিজাইন ও ব্যবসা নিয়ে নানা পরামর্শ দেন’- বলেন র্যাচেল রিলে।






মন্তব্য চালু নেই