মেইন ম্যেনু

শিশুর বিরুদ্ধে শিশু ধর্ষণের অভিযোগ

পাবনার সাঁথিয়া পৌরসভায় তৃতীয় শ্রেণির এক ছাত্রী ধর্ষণের শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে এই ঘটনা ঘটে।

এর আগে গত ১৪ মার্চ দিবাগত রাতে রাতে সাঁথিয়া উপজেলার করমজা ইউনিয়নে পাবনা সরকারি এডওয়ার্ড বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের এক ছাত্রী (২১) গণধর্ষণের শিকার হন।

সাঁথিয়া থানার পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, পৌরসভার এক রিকশাচালকের মেয়ে তৃতীয় শ্রেণিতে পড়ে। তাকে প্রায়ই উত্ত্যক্ত করত সাবেক এক মহিলা কাউন্সিলরের নবম শ্রেণিতে পড়ুয়া ছেলে (১৫)। এরই ধারাবাহিকতায় মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে বিদ্যালয়ে যাওয়ার জন্য তৈরি হচ্ছিল ওই ছাত্রী। তখন তার মা বাসায় ছিলেন না। কিস্তি দেওয়ার জন্য সমিতিতে গিয়েছিলেন।

এ সুযোগে নবম শ্রেণির ওই ছাত্র ঘরে ঢুকে ছাত্রীকে ধর্ষণ করে। এ সময় সে চিৎকার দিতে থাকলে ছাত্রটি মুখ চেপে ধরে। পরে নিরুপায় হয়ে সে ওই ছাত্রের হাতে কামড় দেয়। তখনই হাত সরিয়ে নিলেই চিৎকার দেয় মেয়েটি। তার চিৎকারে আশে পাশের লোকজন এসে ধরতে গেলে ওই ছাত্র পালিয়ে যায়।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে সাঁথিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাসির উদ্দিন জানান, এ ব্যাপারে মেয়েটির মা থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছে। মেয়েটি এখন সাঁথিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন আছে। তার ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য বুধবার সিভিল সার্জনের কাছে পাঠানো হবে।

শিশু আইন, ২০১৩ অনুযায়ী ধর্ষণের শিকার ও ধর্ষণে অভিযুক্ত দুজনের বয়স ১৮ নিচে হওয়ায় তারা শিশু বলে গণ্য।






মন্তব্য চালু নেই