মেইন ম্যেনু

শিশু ঘুমাতে চায় না?

শিশুর ঘুম নিয়ে উদ্বিগ্ন নন এমন মা-বাবা কমই আছেন। দিনের বেলা যদিও ঘুমায় রাত হলে লাইটের মতো চোখদুটো জ্বলে থাকে। সঙ্গে জাগিয়ে রাখে কর্মব্যস্ত আপনাকেও। ভালো ঘুম না হওয়া আপনার এবং তাদের জন্য স্বাস্থ্য নষ্ট হওয়ার অন্যতম কারণ। বড়দের ঘুমের পাশাপাশি শিশুদের ঘুমের ব্যাপারটিও সমান গুরুত্ব দেয়া হয়। যেসব বাচ্চা রাতে ঘুমায় না আর সারা দিন ঘুমিয়ে কাটায়, তাদের মায়েদের বিড়ম্বনা সবচেয়ে বেশি। অথচ কিছু পদ্ধতি অবলম্বন করলে শিশু দিন ও রাতের পার্থক্য দ্রুত বুঝতে পারবে। সে দিনে জেগে থেকে রাতে ঘুমাতেও শুরু করবে। তাই-

• দিনের বেলা ঘরে উজ্জ্বল আলোর ব্যবস্থা রাখুন। বাচ্চার সঙ্গে কথোপকথন চালিয়ে যান, কোনো কাজে ব্যস্ত রাখেন- যাতে দিনে না ঘুমায়।

• দিনের বেলা বাচ্চাকে মিউজিক, টিভি বা অন্য কোনো খেলায় ব্যস্ত রাখা যেতে পারে। দিনের বেলা দৌড়াদৌড়িতে সে ক্লান্ত থাকবে, রাতে ঘুম হবে ভালো।

• দিনের বেলায় শিশুকে একবারে নির্ঘুম রাখতে হবে তা নয়, তবে খুব বেশি যেন না ঘুমায়।

• শিশু দুই থেকে চারবারে এক-দেড় ঘণ্টার ঘুম দিতে পারে। কিন্তু সন্ধ্যা ৬টার পর শিশু যেন না ঘুমায় সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে। খেলা, কথা বলায় তাকে ব্যস্ত রাখতে হবে।

• সন্ধ্যা থেকে শিশুকে জাগিয়ে রাখলেও রাত ৮ থেকে ৯টার পর থেকেই শিশুর ঘুমের আয়োজন শুরু করে দিন।

• ঘুমের আগে শিশুকে সর্বশেষ রাত ১০টার দিকে খাওয়াতে চেষ্টা করুন। এরপর শিশু না ঘুমালেও তাকে বিছানায় নিয়ে ঘুমানোর জন্য ছড়া বা গান শোনাতে পারেন।

• এসময় ঘরে শব্দও কম করুন। যাতে নিরিবিলি পরিবেশে তার ঘুম ভালো হয়।

• ঘুমের এসব পদ্ধতি অবলম্বনের সময় খুব কঠোর হওয়া যাবে না। জবরদস্তিও করা উচিৎ নয়।

• প্রতিদিনের এই অভ্যাস বাচ্চার সঠিক ঘুমকে নিশ্চিত করবে।






মন্তব্য চালু নেই