মেইন ম্যেনু

শিশু ছাত্রী ধর্ষনের শিকার

হামিদা আক্তার, (ডিমলা) নীলফামারী থেকে : উপজেলার গোডাউনের হাট সরকারী প্রাথমিক বিদ্যায়ের প্রথম শ্রেনীর ছাত্রী (৬) অর্নাস পড়–য়া এক ছাত্রের লোলুপ দৃষ্টিতে পড়ে হয়ে ধর্ষনের শিকার হয়েছে খবর পাওয়া গেছে। জানা যায়, গতকাল শনিবার সন্ধায় এ ঘটনার শিকার হলে রাত সাড়ে ৯ টার দিকে ধর্ষিতা শিশুটিকে ডিমলা হাসপাতালে আনা হলে শিশুটির অবসস্থা আশংঙ্গাজনক হওয়ায় তাকে কতর্ব্যরত চিকিৎসক রাতেই রংপুর মেডিকেল কলেজে রেফার করেন। পরিবারের লোকজন শিশুটিকে রাতেই রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। এ ঘটনার পরেই ধর্ষক পালিয়ে যায়।

কন্যা শিশুটির পিতা উপজেলার খালিশাচাঁপানী ইউনিয়নের ডালিয়া গ্রামের সামিনুর রহমান অভিযোগ করে বলেন, আমার শিশু মেয়ে শাকিলা পাশ্ববর্তী আব্দুর জব্বারের বাড়িতে টিভি দেখতে যায়। টিভি দেখা অবস্থায় ঘরে শিশুটিকে একা পেয়ে আব্দুর জব্বারের ছেলে ডোমার সরকারী কলেজের অর্নাস পড়–য়া বাংলা দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র সবুজ (২২) আমার শিশু কন্যাকে জোড় করেই ধর্ষন করে। এ সময় শিশু কন্যাটির আতœচিৎকারে এলাকাবাসী ছুটে এলে ধর্ষক পালিয়ে যায়।

এ ব্যাপারে খালিশা চাঁপানী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আতাউর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, আমি খবর পেয়ে তাৎক্ষনিকভাবে শিশুকে হাসপাতালে ভর্তি করার পরামর্শ দেই। শুনেছি শিশুকন্যাটিকে ডিমলা হাসপাতাল থেকে আশংঙ্গাজনক অবস্থায় রংপুরে স্থানান্তরিত করা হয়েছে। এ বিষয়ে ডিমলা থানার ইনচার্জের দায়িত্বে থাকা এসআই সাহাবুদ্দিন বলেন, এ ঘটনায় ধর্ষককে গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।






মন্তব্য চালু নেই