মেইন ম্যেনু

শিশু যৌন নির্যাতনে বাংলাদেশি শান্তিরক্ষীরাও অভিযুক্ত!

প্রথমবারের মতো মধ্য আফ্রিকা প্রজাতন্ত্রে শিশুদের যৌন নির্যাতনের সঙ্গে জড়িত শান্তিরক্ষীদের জাতীয়তা প্রকাশ করেছে জাতিসংঘ। এতে সন্দেহভাজনের তালিকায় আছে বাংলাদেশের শান্তিরক্ষীরাও।

এমন খবর প্রকাশ করেছে বিবিসি ও রয়টার্স।

খবরে বলা হয়, নিউইয়র্কে স্থানীয় সময় শুক্রবার এক সংবাদ সম্মেলনে জাতিসংঘের সহকারী মহাসচিব অ্যান্থনি ব্যানবেরি আবেগ জড়ানো কণ্ঠে যৌন নির্যাতনের নতুন ১২টি অভিযোগ তুলে ধরেন। তিনি বলেন, “যারা জাতিসংঘের হয়ে শান্তি রক্ষার কাজ করে, যারা নিরাপত্তা দেওয়ার কাজ করে; এই ধরনের অভিযোগ কতটা ক্ষুব্ধ করেছে, তা বলে বোঝানো যাবে না।” তবে এই সমস্যা মোকাবেলায় সম্ভাব্য সব কিছুই করা হচ্ছে বলে জানান তিনি।

গত বছরও শিশুদের যৌন নির্যাতনের ১০টি অভিযোগ উঠেছিল। তবে তখন শান্তিরক্ষীদের জাতীয়তা প্রকাশ করা হয়নি।

শুক্রবারের সংবাদ সম্মেলনে তুলে ধরা ১২টি ঘটনায় ছয়টি শিশুর অভিযোগ বাংলাদেশ, কঙ্গো, নাইজার, মরক্কো ও সেনেগালের শান্তিরক্ষীদের দিকে। অন্য ছয়টি শিশুর অভিযোগ, তারা ফ্রান্স, জর্জিয়া ও আরেকটি ইউরোপীয় দেশের সৈন্যদের হাতে যৌন নির্যাতনের শিকার হয়েছে।

শিশুদের অভিযোগ অনুযায়ী, ঘটনাগুলো ঘটেছে ২০১৪ সালে দেশটির রাজধানী বাঙ্গুর বিমানবন্দরের পাশের একটি শরণার্থী শিবিরের কাছে।

মধ্য আফ্রিকার দেশটিতে মুসলিম-খ্রিস্টান সংঘাত থামাতে ২০১৩ সাল থেকে বিদেশি সৈন্যরা সেখানে অবস্থান করছে। প্রথমে যায় ফ্রান্সের সৈন্যরা। পরের বছর জাতিসংঘ শান্তিরক্ষী মোতায়েন করা হয়। সেখানে বর্তমানে ১০ হাজারের বেশি বিদেশি সৈন্য রয়েছে।



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই