মেইন ম্যেনু

চোখ উপড়ে ফেলে নির্মমভাবে হত্যা

শিশু রবিউল হত্যার দায় স্বীকার আসামি মিরাজের

বরগুনার তালতলীতে মাছ চুরির অভিযোগে ১০ বছরের শিশু রবিউল আউয়ালকে চোখ উপড়ে শাবল দিয়ে নির্মমভাবে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় আসামি মিরাজ আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

এ ঘটনায় বুধবার আটক মিরাজকে বৃহস্পতিবার আদালতে তোলা হয়। এ সময় তিনি স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন।

রবিউলের বাবা দুলাল মৃধা জানান, তাদের বাড়ির পাশের লুতরার খালে জাল পেতে মাছ ধরতেন প্রতিবেশী মিরাজ। দুই দিন আগে মিরাজ তাদের হুমকি দেন যে, তার জালের মাছ কে বা কারা ধরে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় রবিউলকে সন্দেহ করেন মিরাজ। ভবিষ্যতে রবিউল একই কাজ করলে তাকে দেখিয়ে দেবে বলে হুমকি দেন মিরাজ।

এ ঘটনার পর মঙ্গলবার বিকালে সোহাগ নামের স্থানীয় অপর এক কিশোর আমখোলা গ্রামের খাল পারে রবিউলের লাশ পড়ে থাকতে দেখে তার স্বজনদের খবর দেয়। বুধবার সকালে রবিউলের বাবার উপস্থিতিতে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্যে মর্গে পাঠায় পুলিশ।

ঘটনার পর থেকে সন্দেহভাজন মিরাজ পলাতক ছিলেন বলে জানিয়েছেন রবিউলের স্বজনরা। পরে পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে।

বরগুনার পুলিশ সুপার বিজয় বসাক পিপিএম বিষয়টি অত্যন্ত বেদনাদায়ক উল্লেখ করে বলেন, “সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।”






মন্তব্য চালু নেই