মেইন ম্যেনু

শুধুমাত্র ভালবাসার জন্যই রাস্তা মেরামতের কাজে, ৮৪ বছর বয়সী এই প্রেমিক

আপনি কি কাউকে ভালবাসেন? মন প্রাণ দিয়ে তাঁকে চান? আপনার মনে শুধুই তারই কথা? তাহলে আপনি বলেন তো কি করতে পারবেন তাঁর জন্য? নিজের ভালবাসার জন্য?

ভালোবাসার জন্যে যেকোনো কাজ করতে পারবেন? আর তা যদি হয় ৮৪ বছর বয়সে তখন? ভালবাসার জন্য এমনই এক অবান্তর ঘোষণা দিলেন ৮৪ বছর বয়সী এক বৃদ্ধ।

কানাডায় বসবাসরত এই বৃদ্ধ মানুষটি ভালোবাসার জন্য রাস্তা পাকা করার কাজের ঘোষণা দেন।

ইনি নোভা স্কশিয়ার প্রেস্টন পেরি, যে কিনা ইতোমধ্যেই খবরের শিরোনাম হয়েছেন। হঠাৎ করেই খুব অসুস্থ হয়ে পড়েন। আর সেই অবস্থাতেই তার ট্রাক্টরটি নিয়ে বাড়ির সামনের রাস্তাটি মেরামত করতে শুরু করেন। খানা-খন্দে পূর্ণ রাস্তাটি ঠিকঠাক করতে লেগে যান এই বয়সে। কিন্তু কেন?

পেরি জানান, তিনি এবং তার প্রতিবেশীরা সরকারকে বহু দিন ধরে অনুরোধ করছেন রাস্তাটি ঠিক করে দেওয়ার জন্যে। গর্তগুলো ভরাট করতে হবে, অথবা পুরোটা ঠিক করে দিতে হবে।

এর পেছনে ভালোবাসার গল্পও রয়েছে। এ রাস্তাতেই এক দুর্ঘটনায় তার ৮২ বছর বয়সী স্ত্রীর পেছনে একটি হাড় ভেঙে যায়। কোনমতো সুস্থ হয়েছেন।

কিন্তু এখনো এ রাস্তা দিয়ে চলাফেরা স্ত্রীর জন্যে খুব কষ্টকর হয়ে পড়ে।

এতবার বলার পরেপ তাদের কথা কানে তোলেনি সরকার। তাই নিজেই রাস্তা মেরামতের কাজে লেগে পড়েন। এ রাস্তা দিয়ে গাড়ি চলার সময় রীতিমতো দুর্ঘটনার শিকার হয়। গর্তে আটকে যায় বা গাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়। পেরি জানান, যতবার এ রাস্তায় আমরা পা ফেলি, স্ত্রীর পিঠের ব্যথা শুরু হয়।

এখন পর্যন্ত হাল ছাড়েননি পেরি। যতটা পারা যায় কাজ এগিয়ে নিয়ে যাবেন তিনি। প্রয়োজনে আরো বড় আয়োজন নিয়ে কাজ করবেন। কারণ, এই রাস্তায় চলতে গিয়ে সম্প্রতি তার নাতীর পিঠেও ব্যথা হয়েছে, জানালেন পেরি।

ইতিমধ্যে টনক নড়েছে সরকারের। উচ্চপদস্থ কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, খুব দ্রুত রাস্তাটির কাজ শুরু হবে। পরিকল্পনা প্রণয়ন হয়ে গেছে। তবে পুরোপুরি পাকা করা হবে কিনা তা এখনো নিশ্চিত হয়নি।






মন্তব্য চালু নেই