মেইন ম্যেনু

শুধু মুসলিম নারীদের উপরই কি শালীন পোশাকের বিধান রয়েছে?

সত্যিই তো! শুধু মুসলমান নারীরাই কি শালীন পোশাক পরিধান করবে? নাকি খ্রিস্টান, হিন্দু, বৌদ্ধসহ অন্য সব ধর্মের নারীরাও শালীন এবং লম্বা পোশাক পরিধান করবে? এমন প্রশ্ন নিশ্চয় আপনার মাথায় ঘুরপাক খাচ্ছে। তবে আর কি এমন প্রশ্ন ডা. জাঁকির নায়েককেও করা হয়েছিল।

পিস টিভি বাংলার নিয়মিত আয়োজন প্রশ্ন উত্তর পর্বে ডা. জাঁকির নায়েককে এই প্রশ্নটি করা হয়েছিল। উত্তরে ডাক্তার জাঁকির নায়েক বলেন, ‘খ্রিস্টান ধর্ম মতে মহিলারা এমন পোশাক পরবে না, যা পুরুষের পোশাকের মতো। পুরুষরাও মহিলাদের মতো পোশাক পরবে না। যারা এমনটি পরবে তারা প্রভুর ঘৃণার পাত্র। বাইবেলে আরও বলা আছে, মহিলারা শালীন পোশাক পরবে।’ [বুক অব ডিওটরনমী : অধ্যায় ২২, অনুচ্ছেদ ৫]।

হিন্দুদের ধর্মগ্রন্থ…

বেদের উদ্ধৃতি টেনে তিনি বলেন, ‘হিন্দু ধর্ম মতে মহিলার পুরুষের মতো পোশাক পরবে না। এবং পুরুষরাও তাদের স্ত্রীদের পোশাক পরবে না।’ [ঋগ্বেদ : অনুচ্ছেদ ৮৫, পরিচ্ছদ ৩০]।

বেদে আরও বলা হয়েছে, ‘মহান ঈশ্বর তোমাদের নারী বানিয়েছেন। তোমাদের দৃষ্টি সংযত রাখবে। পর্দার আড়ালে থাকবে।’ [ঋগ্বেদ : অনুচ্ছেদ ৩৩, পরিচ্ছদ ১৯]।

ডাক্তার জাঁকির নায়েক বলেন, খ্রিস্টান ও হিন্দু ধর্মের লোকজন মনে করেন যে, স্কট পরা হারাম ও নিষিদ্ধ। এদিকে আমাদের মুসলিম ধর্ম মতেও নারীদের জন্য স্কার্ট বা ছোট পোশাক পরা নিষেধ। তাই আমি আশা করবো, যেসব মুসলিম নারী এমন পোশাক পরেন, তারা অচিরেই শালীন ও লম্বা পোশাক পরবেন ইনশাআল্লাহ!






মন্তব্য চালু নেই