মেইন ম্যেনু

শুরুতেই ব্যর্থ সানিয়া মির্জা

এককে তেমন সুবিধা করতে না পারলেও সাম্প্রতিক সময়ে দ্বৈতে তাঁর ঈর্ষণীয় সাফল্য। এ বছরের অস্ট্রেলিয়ান ওপেন আর গত বছরের উইম্বলডন ও ইউএস ওপেনের নারী দ্বৈতের শিরোপা জিতে নিজেকে অন্য উচ্চতায় নিয়ে গেছেন সানিয়া মির্জা। কিন্তু রিও অলিম্পিকের শুরুতেই ব্যর্থ ভারতের টেনিস তারকা।

নারী দ্বৈতের প্রথম রাউন্ডেই হেরে গেছেন সানিয়া ও প্রার্থনা থোম্বারে। অনেক লড়াই করলেও চীনের শুয়াই পেং ও শুয়াই ঝ্যাংয়ের কাছে হার মেনেছেন তাঁরা। ম্যাচের ফল ৭-৬, ৫-৭, ৭-৫।

সানিয়া-প্রার্থনাকে উৎসাহ দিতে গ্যালারিতে উপস্থিত ছিলেন বেশ কিছু ভারতীয়। ছিলেন শচীন টেন্ডুলকারও। কিন্তু ভারতের ক্রিকেট-ঈশ্বরের উপস্থিতিও সানিয়াদের উজ্জীবিত করতে পারেনি।

প্রথম সেটে ৫-৪ গেমে এগিয়ে থেকেও চীনা জুটিকে ঘুরে দাঁড়ানোর সুযোগ করে দিয়েছেন সানিয়া-প্রার্থনা। শেষ পর্যন্ত টাইব্রেকারে সেটটা হেরেই গেছেন তাঁরা। দ্বিতীয় সেটে ৫-২ গেমে এগিয়ে থেকেও জিতেছেন অতি কষ্টে। কিন্তু শেষ সেটে আর শেষ রক্ষা হয়নি সানিয়াদের। প্রায় পৌনে তিন ঘণ্টা অনেক লড়াই করলেও হারের হতাশায় ডুবতে হয়েছে।
শনিবার আসলে হতাশাতেই কেটেছে ভারতীয়দের। সানিয়াদের আগে পুরুষ দ্বৈতের প্রথম রাউন্ডেও হেরে গেছেন লিয়েন্ডার পেজ আর রোহান বোপান্না। পেজ আর প্রার্থনার এবারের মতো অলিম্পিক অভিযান শেষ। সানিয়া আর বোপান্না এরপর লড়বেন মিশ্র দ্বৈতে।

তবে এই ইভেন্টে যেন তাঁদের ওপরে বেশি প্রত্যাশা না করা হয়, সেদিকে ইঙ্গিত করে সানিয়ার মন্তব্য, ‘আমি যেমনই খেলি না কেন, ভারতীয়রা সবসময় আমার কাছ থেকে শিরোপা চায়। আমরা তো শুধু চেষ্টাই করতে পারি। খেলাধুলায় কোনো কিছুর নিশ্চয়তা দেওয়া যায় না। আমরা শুধু নিজেদের সেরাটা উজাড় করে দেওয়ার চেষ্টা করতে পারি।’






মন্তব্য চালু নেই