মেইন ম্যেনু

‘শেখ হাসিনার মতো সাহসী নারী পৃথিবীতে আর নেই’

কিশোরগঞ্জ জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে আয়োজিত কর্মিসভায় সদ্যসমাপ্ত পৌর নির্বাচনে কিশোরগঞ্জ জেলার বাজিতপুরের অনিয়মের ঘটনার কঠোর সমালোচনা করেন জনপ্রশাসন মন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম।

তিনি বলেছেন, আওয়ামী লীগ অবাধ নির্বাচনে বিশ্বাসী। ভোট কারচুপি করে আওয়ামী লীগ কখনো ক্ষমতায় যায়নি। জাল ভোট ও ভোট ডাকাতি আমরা করি না। কিন্তু বাজিতপুরে যে ঘটনা ঘটেছে, তার কোনো দরকার ছিল না।

সৈয়দ আশরাফ বলেন, সেখানে পরাজিত হলে আমাদের ক্ষমতা চলে যেত না। আমরা ভৈরব, কুলিয়ারচর, কটিয়াদী, হোসেনপুর ও কিশোরগঞ্জ সদরে বিজয়ী হয়েছি।

শনিবার বিকেলে কিশোরগঞ্জ জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে তিনি এসব কথা বলেন।

জনপ্রশাসন মন্ত্রী বলেন, বাজিতপুরে পরাজিত হলে কি আমাদের সব অর্জন শেষ হয়ে যেত? তাহলে কেন আমাদের ভোট ডাকাতি করতে হবে? আগামী ইউপি নির্বাচন দলীয়ভাবে অনুষ্ঠিত হবে। ইউপি নির্বাচনে ওয়ার্ড, ইউনিয়ন ও উপজেলা মিলে প্রার্থী ঠিক করবে।

যোগ্য প্রার্থীকে তৃণমূল থেকে মনোনয়ন দেয়া হলে আওয়ামী লীগ ইউপি নির্বাচনেও বিজয়ী হবে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, এ দায়িত্ব পালনে সবাইকে আন্তরিকভাবে কাজ করতে হবে। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। দেশের সাফল্যের এই ধারাবাহিকতা রাখতে শেখ হাসিনাকে সব সময় দরকার।

তিনি বলেন, শেখ হাসিনার মতো সাহসী বীর নারী পৃথিবীতে আর নেই। তিনি দীর্ঘদিন ধরে আমাদের দলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন। দলের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে আমি অনেকদিন ধরে তাকে পাশে থেকে দেখে আসছি। তার ওপর বারবার আঘাত এসেছে। কিন্তু আল্লাহ সহায় বলে মৃত্যুর দুয়ার থেকেও তিনি ফিরে এসেছেন।

কর্মিসভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অ্যাডভোকেট কামরুল আহসান শাহজাহান।

অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সংরক্ষিত আসনের এমপি দিলারা বেগম আছমা, জেলা পরিষদ প্রশাসক অ্যাডভোকেট মো. জিল্লুর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট এম এ আফজল প্রমুখ।






মন্তব্য চালু নেই