মেইন ম্যেনু

শেরে বাংলায় টাইগারদের ক্যাচ মিসের মহড়া

ঘণ্টা তিরিশ আগে এই শেরেবাংলায় হয়েছিল অন্য রকম একটি মহড়া। শুক্রবার পড়ন্ত বিকেলে আরও একটি মহড়া হয়ে যাচ্ছে। পার্থক্য হচ্ছে আগের দিন সেনাবাহিনীরা জঙ্গি ঠেকাতে করেছিলেন সামরিক মহড়া। আর এদিন মাহমুদউল্লাহ-রুবেলরা মাতলেন ক্যাচ মিসের মহড়ায়! এমনিতেই ইংলিশরা ব্যাট হাতে কড়া শাসন করে যাচ্ছিলেন মাশরাফি-সাকিবদের, তার উপর ক্যাচ মিসের কারণে ম্যাচে জেঁকে বসেছে সফরকারীরা।

যদিও দিনের শুরুটা দুর্দান্ত করেছিল টাইগাররা। দারুণ এক ক্যাচ ধরার পর চমৎকার থ্রোতে একটি রান আউট করেন সাব্বির রহমান। ৬৩ রানেই সফরকারীদের তিন উইকেট তুলে নেয় তারা; কিন্তু এরপর দুই বেন- বেন স্টোকস ও বেন ডাকেটের ব্যাটে ঘরে দাঁড়ায় ইংল্যান্ড।

৩১তম ওভারের দ্বিতীয় বলে ফিরে যেতে পারতেন স্টোকস। ৬৯ রানে তখন ব্যাট করছিলেন তিনি। তাসকিন আহমেদের বলে মিড অনে সহজ ক্যাচ দিয়েছিলেন। নিচু হওয়া সে ক্যাচটি তালুবন্দি করতে পারেননি মাহমুদউল্লাহ।

পরের ওভারে আবারো জীবন পান স্টোকস। এবার মাশরাফির বলে ডিপ কভারে আরও সহজ ক্যাচ দিয়েছিলেন তিনি। জায়গা মত দাঁড়িয়ে থেকেও শেষ মুহূর্তে বল ছেড়ে দেন মোশারফ হোসেন রুবেল।

এরপর ৩৭তম ওভারে আবারো সেই মোশারফ রুবেল। মোসাদ্দেক হোসেনের করা বলে বেন ডাকেট পুল করার চেষ্টা করেছিলেন। বল স্কয়ার লেগে দাঁড়ানো রুবেলের হাতে সরাসরি চলে যায়; কিন্তু বলটি তালুবন্দি করতে না পারায় জীবন পান ডাকেট।

এরপর মাশরাফির ৪০তম ওভারের প্রথম বলে আরও একটি সুযোগ দিয়েছিলেন স্টোকস। তবে চার জন ফিল্ডার দৌড়ে গিয়েও নাগাল না পেলে অক্ষতই থাকেন তিনি।

এর আগে আফগানিস্তানের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচেই তিনটি সহজ ক্যাচ ছেড়েছিল টাইগাররা। ফলে সহজ ম্যাচকে অনেক কঠিন করেই জিততে হয়েছিল তাদের। পরের দুই ম্যাচেও একই মহড়ায় নেমেছিল স্বাগতিক ফিল্ডাররা।






মন্তব্য চালু নেই