মেইন ম্যেনু

শেষ ওভার দেখেননি মাশরাফি!

ড্যারেন স্টিভেন্স আউট হওয়ার পর ক্রিজে আসেন মাশরাফি। কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের তখন জয়ের জন্য প্রয়োজন ১১ বলে ২৩ রান। কেভন কুপারের বল কোনোরকমে ব্যাটে লাগিয়ে হাওয়ায় ভাসিয়ে দিলেন ভিক্টোরিয়ান্স অধিনায়ক। কভারে অসাধারণ এক ক্যাচ নিলেন বরিশাল বুলসের ক্যাপ্টেন মাহমুদউল্লাহ।

ড্রেসিং রুমে ফিরে গিয়ে শুয়ে রইলেন ফিজিওর বিছানায়। কষ্ট আর ক্লান্তি দুটো এড়ানোর জন্য মাশরাফির প্রিয় জায়গা এটাই।

নাটকীয় ম্যাচে শেষ ছয় বলে ১৩ রান প্রয়োজন কুমিল্লার। ক্রিজে নতুন ব্যাটসম্যান শুভাগত হোম ও ২৮ রান নিয়ে ব্যাট করা অলক কাপালি। কিন্তু মাশরাফি সেই আগের জায়গাতেই! শেষ বলে রোমাঞ্চকর জয় তুলে নেওয়ার পর বিছানা ছাড়েন। ড্রেসিং রুম থেকে ভোঁ দৌড় দিয়ে মাঠে ঢোকেন মাশরাফি।

ম্যাচ শেষে জানালেন শেষ ওভারের একটি বলও তিনি দেখেননি। পুরোটা সময় ছিলেন ফিজিওর বিছানায় শুয়ে। চিন্তা আর উত্তেজনা থেকেই নিজের সবচেয়ে পছন্দের জায়গাকে বেছে নেন কুমিল্লা অধিনায়ক।

মাশরাফি বিন মুর্তজা বলেন, ‘আমার কেন জানি মনে হচ্ছিল, ড্রেসিং রুমের ভেতরে থাকলে ম্যাচটা জিতে যাব। ড্রেসিং রুমে আমি ফিজিওর বিছানায় শুয়ে ছিলাম, যেটি আমার সবচেয়ে আপন!’

ম্যাচ শেষে ভোঁ দৌড়, ভিক্টোরি ল্যাপ, উল্লাস, অন্য সবার থেকে একটু বেশি কাজ করেছে মাশরাফির। গ্যালারিতে ক্যাপ ছুড়ে মারতেও দ্বিধা করেননি। এসব কিছুই অলক আর ইমরুলের জন্য করেছেন বলে দাবি মাশরাফির, ‘উদযাপনটা অলক আর ইমরুলের জন্য ছিল।’



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই