মেইন ম্যেনু

শেষ ওয়ানডেতে বাংলাদেশের একাদশে পরিবর্তন

প্রথম দুই ওয়ানডে জিতে আগেই সিরিজ জিতে নিয়েছিল বাংলাদেশ। শেষ ওয়ানডে বাংলাদেশের জন্য শুধু নিয়ম রক্ষার ম্যাচ! আসলে নিয়ম রক্ষার ম্যাচ বললে ভুল হবে। জয়ের রেকর্ড বাড়ানোর ম্যাচ আর ভারতকে প্রথমবারের মত ওয়ানডে সিরিজে হোয়াইটওয়াশের ম্যাচ।

সেই লক্ষ্যে মিরপুরে বুধবার বেলা ৩টায় মাঠে নেমেছে ভারত ও বাংলাদেশ। টসে জিতে ভারতকে ব্যাটিংয়ে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন মাশরাফি বিন মর্তুজা।

পুরোপুরি ফিট না হওয়ায় প্রথম দুই ওয়ানডে খেলা তাসকিন আহমেদকে বিশ্রাম দেওয়া হয়েছে। তার পরিবর্তে দলে সুযোগ পেয়েছেন আরাফাত সানী। যদিও শেষ ম্যাচের জন্যে স্কোয়াডে লেগ স্পিনার জুবায়ের হোসেনকে নেওয়া হয়েছিল, কিন্তু সেরা একাদশে তাকে রাখেনি টিম ম্যানেজম্যান্ট।

দ্বিতীয় ওয়ানডে চলাকালীন তাসকিনের সাইড স্ট্রেইন তথা পায়ের পেশীতে টান পড়ে। এরপর আর বোলিং করেননি। টান পড়ার আগে ৪ ওভার বোলিং করে ২৪ রানে তাসকিন ছিলেন উইকেটশূন্য। তবে প্রথম ম্যাচে তাসকিনের বোলিংয়ে ম্যাচে ফিরে বাংলাদেশ। শেখর ধাওয়ান ও বিরাট কোহলির উইকেট নিয়ে ব্রেক থ্রু এনে দেন বাংলাদেশকে।

মঙ্গলবার দলের সঙ্গে অনুশীলনেও তাসকিন ফিজিও ও ট্রেনার নিয়ে ব্যস্ত ছিলেন। চোট গুরুতর না হলেও শেষ ম্যাচে তাসকিনকে একাদশে নিয়ে ঝুঁকি নেয়নি টিম ম্যানেজম্যান্ট। ভারতের বিপক্ষে সিরিজ শেষেই দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে তিনটি ওয়ানডে ও দুটি টি-টোয়েন্টি খেলবে বাংলাদেশ। পরবর্তী হোম সিরিজের জন্যেই তাসকিনকে বিশ্রাম দেওয়া হয়েছে।

তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম দুই ম্যাচ জিতে এরই মধ্যে সিরিজ নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশ। প্রথম ম্যাচে ৭৯ রানে জয় পায় বাংলাদেশ। দ্বিতীয় ম্যাচে ৬ উইকেটে জয় পায় টাইগাররা।






মন্তব্য চালু নেই