মেইন ম্যেনু

শেষ বলে পান্ডেকে যা বলেছিলেন ধোনি

টি২০ বিশ্বকাপে মুখোমুখি বাংলাদেশ ও স্বাগতিক ভারত। সেমিফাইনালের পথ খোলা রাখতে দুই দলের জন্যই এই ম্যাচে জয় পাওয়া অত্যাবশ্যক। ভারতের দেওয়া ১৪৭ রানের টার্গেটে ১৯.৫ ওভারে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৮ উইকেটে ১৪৫ রান। শেষ বলে তাই জিততে হলে ২ রান করতে হবে বাংলাদেশকে আর এক রান করতে পারলে অন্তত ম্যাচটা টাই হয়ে সুপার ওভারে যাবে।

বুধবার রাতের ম্যাচটিতে শেষ বলে তাই ভর করেছিল টানটান উত্তেজনা। এই অবস্থায় ওভার করছিলেন যিনি সেই পেসার হার্দিক পান্ডেকে ডেকে নিয়ে কিছু একটা পরামর্শ দিয়েছিলেন ভারতের অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি। সঙ্গে ছিলেন দলের অন্যরাও। পান্ডেকে ওই সময় কি বলেছিলেন ভারতের অধিনায়ক? ম্যাচ শেষে এর উত্তরটা জানিয়ে দিয়েছেন ধোনি। তিনি বলেছেন, ‘শেষ বলটিতে ইয়র্কার না দেওয়ার জন্য পান্ডেকে পরামর্শ দিয়েছিলাম আমরা। কারণ, ইয়র্কার দিলে ব্যাটসম্যান কোনোরকমে তা আটকে সিঙ্গেল রান নিয়ে নিতে পারতো। আবার ইয়ার্কার দিলে তা ফুলটসও হয়ে যেত পারতো। তাই ইয়র্কার দিতে তাকে নিষেধ করেছিলাম।’

ধোনি আরও বলেছেন, ‘তখন আমাদের সামনে যে প্রশ্নটি ছিল তা হলো ইয়র্কার না দিলে আর কোন ডেলিভারি দেওয়া যেতে পারে। কেননা, লাইন লেন্থ একটা বিষয়। আপনি নিশ্চয় ওই সময় ওয়াইড বল করতে চাইবেন না। কারণ, তা উইকেটরক্ষকের হাতে জমা পড়তে পড়তে ব্যাটসম্যানরা রান নিয়ে নিতে পারে। তাই সে সময়টায় আমরা কিভাবে কার্যকরী ফিল্ডিং সাজানো যায় এবং কোন লেন্থে বল করা যায় তা পরিকল্পনা করি। আর তা একটু সময় নিয়েই করেছিলাম। কেননা, ওই ছিল ম্যাচের শেষ বল। ওই সময় একটু ক্ষেপণ হলেও আমাকে জরিমানা করা হবে না তা জানি (হেসে)’

ধোনির মতে, পরিকল্পনা করলেই হয় না, এর সুষ্ঠু বাস্তবায়নও প্রয়োজন। হার্দিক পান্ডে সেই পরিকল্পনা দারুণভাবে বাস্তবায়ন করেছে। তাই প্রশংসাটা আসলে তারই প্রাপ্য।

প্রসঙ্গত, পান্ডের ওই শেষ বলে ১ রান তুলতে পারলেও ম্যাচটা টাই করে সুপার ওভারে ম্যাচ জেতার চেষ্টা করতে পারতো বাংলাদেশ। কিন্তু হার্দিক পান্ডে ব্যাটসম্যানের (শুভাগত হোম) সামান্য ওয়াইডে বল করে তা উইকেটরক্ষক ধোনির গ্লাভসে জমা করে দেন। আর তাই ম্যাচ টাই করতে ঝুঁকি নিয়ে ১ রান নিতে গিয়ে (শেষ বল, তাই অন্য কোনো বিকল্প ছিল না) রান আউট হয়ে যান বাংলাদেশের মুস্তাফিজুর রহমান। ভারত ম্যাচটি জিতে যায় ১ রানেই।






মন্তব্য চালু নেই