মেইন ম্যেনু

শৌচাগারের দাবিতে ৩ দিন গর্ত খুঁড়লেন অন্তঃসত্ত্বা!

সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা সুশীলা কুরকুটে ভারতের মহারাষ্ট্রের পালঘর জেলার ছোট্ট একটি গ্রামের বাসিন্দা। অখ্যাত গ্রামের পরিবেশও অতি সাধারণ। প্রায় কোনও বাড়িতেই শৌচাগারের কোনও ব্যবস্থা নেই। নারীদেরকেও মাঠে–ঘাটেই যেতে হয় শৌচকর্মের জন্য। সুশীলাও সেই একই উপায়ে এতদিন নিজের শৌচকার্য চালাচ্ছিলেন।

কিন্তু ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে আর এই অন্ধকারে রাখতে চান না তিনি। প্রথমে বাড়ির সকলকেই বলেছিলেন শৌচাগার নির্মাণের কথা। কেউ গুরুত্ব দেননি। শেষে নিজেই শুরু করলেন কাজ। অন্তঃসত্ত্বা অবস্থাতেই বাড়ির পিছনের জায়গায় টানা ৩ দিন ধরে গর্ত খুঁড়লেন একা। তাঁর এই প্রচেষ্টা দেখে হতবাক গ্রামের স্বাস্থ্য কর্মীরা। শেষে তাঁদের সহযোগিতায় সরকারি অর্থ সাহায্যে সুশীলার বাড়িতে গড়ে উঠেছে শৌচাগার।

তিন সন্তানের জননী সুশীলা। প্রথম দুই সন্তান হওয়ার আগে বাড়িতে শৌচাগার ছিল না, তখন বাইরে যেতে হবে এই ভয়েই খাবার কম করে খেতেন। জন্মের পর সন্তান দুর্বল ছিল। সুশীলা নিজেও দুর্বল হয়ে পড়েছিলেন। তৃতীয় সন্তান জন্মের আগে তাই ঠিক করেছিলেন বাড়িতে শৌচাগার তৈরি করবেনই। স্বামীকে বলেও কাজ হয়নি। তাই নিজেই উদ্যোগী হয়েছিলেন।

এভবেই গ্রামে নজির তৈরি করেছেন সুশীলা। বাড়ি বাড়ি গিয়ে এখন প্রচার চালাচ্ছেন তিনি। ইউনিসেফের তরফ থেকেও বিশেষ সম্মান পেয়েছেন সুশীলা। ৮ মার্চ আন্তর্জাতিক নারী দিবসে তাকে সম্মানিত করবেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।






মন্তব্য চালু নেই