মেইন ম্যেনু

শ্রম বিধিমালার গেজেট প্রকাশ

শ্রম আইনের বিধিমালার গেজেট প্রকাশ করেছে সরকার।

সংশোধিত শ্রম বিধিমালায় এই প্রথম শ্রমিকদের জন্য মূল বেতনের সমপরিমাণ বোনাস ও ট্রেড ইউনিয়ন করার অধিকার সংরক্ষণের বিধান রাখা হয়েছে।

বুধবার বিকেলে এই বিধিমালার গেজেট প্রকাশ করা হয়েছে বলে সাংবাদিকদের জানিয়েছেন শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব মিকাইল শিপার।

তিনি বলেন, শ্রম বিধিমালায় প্রতিবছর শ্রমিকদের দু’টি বোনাস দেওয়ার বিধান রাখা হয়েছে। এই বোনাস হবে মূল বেতনের সমপরিমাণ। তাছাড়া বিধিমালায় ট্রেড ইউনিয়ন যুক্ত করা হয়েছে। এখন থেকে শ্রমিকরা ট্রেড ইউনিয়ন ও নির্বাচন করতে পারবেন।

শ্রম সচিব আরো বলেন, বিধিমালার আওতায় মালিক-শ্রমিক ও সরকারি প্রতিনিধি নিয়ে সেফটি কমিটি হবে। এই কমিটি শ্রমিকদের নিরাপত্তার বিষয়গুলো দেখভাল করবে।

তিনি বলেন, আউটসোর্সিং কোম্পানিগুলোকেও শ্রম আইনের আওতায় আনা হয়েছে। এক্সপোর্ট অরিয়েন্টেড কোম্পানিগুলোকেও এ আইনের আওতায় রাখা হয়েছে।

শ্রমিকদের নিরাপত্তা, কাজের পরিবেশ, ভবনের নিরাপত্তাসহ শ্রমিক ও শিল্পের সার্বিক বিষয় বিধিমালার আওতায় আনা হয়েছে।

রানা প্লাজায় দূর্ঘটনার পর যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে জিএসপি (জেনারেলাইজড সিস্টেম অব প্রেফারেন্স) স্থগিত হওয়ার পর ‘বাংলাদেশ শ্রম আইন (সংশোধিত) আইন, ২০১৩’ পাস হয়। এর আগেও দুবার এটির সংশোধন করা হয়। আইন থাকলেও এতদিন বিধিমালা প্রণয়ন করা হয়নি।

জিএসপি ফিরে পেতে শ্রম আইন বাস্তব প্রয়োগে বিধিমালা প্রণয়ন জরুরি হয়ে পড়ে। ফলে, শ্রম আইন সংশোধন করে শ্রম বিধিমালা প্রণয়নের উদ্যোগ নেয় সরকার।

এই বিধিমালার জন্য ২০১৩ সালের আগস্ট মাসে দু’টি কমিটি গঠন করা হয়। মূল কমিটির প্রধান ছিলেন শ্রমসচিব মিকাইল শিপার।






মন্তব্য চালু নেই