মেইন ম্যেনু

শ্রীমঙ্গলে বিজিবির অভিযানে ইয়াবাসহ আটক ২

সৌরভ আদিত্য, শ্রীমঙ্গল (মৌলভীবাজার) : মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে উপজেলার সিন্দুরখাঁন সীমান্তের কুঞ্জবন গ্রামে ইয়াবাসহ আমিন মিয়া ও খুর্শেদ মিয়া নামে দুই ইয়াবা ব্যবসায়িকে আটক করেছে বিজিবি।

এদের মধ্যে আমিন মিয়া সিন্দুরখান বাজার কমিটির সেক্রেটারী বলে জানা গেছে।

বিজিবির এ অভিযানকে স্থানীয় এলাকাবাসী সাধুবাদ জানিয়ে বলেছেন,এধরনের অভিযান অব্যাহত থাকলে মাথাচাড়া দিয়ে উঠতে পারবে না মাদক ব্যবসায়িরা।এলাকার যুবসমাজ বিপথগামী হবে না। বিজিবির এধরনের অভিযান এলাকায় অব্যাহত রাখার দাবী তুলেছেন বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষজন।

বিজিবি জানিয়েছে,আমিন মিয়া নেপথ্যে থেকে দীর্ঘদিন ধরে একটি চক্রের মাধ্যমে সারা উপজেলাসহ পুরো জেলাব্যাপী ইয়াবা ব্যবসা চালিয়ে আসছিল এমন সংবাদ বিজিবির কাছে ছিল। এর পর থেকেই হাতে নাতে ধরতে সিন্দুরখান বিজিবি তৎপর হয়ে অনেকদিন ধরে তার পেছনে সোর্স লাগিয়ে রাখা হয়েছিল।

শ্রীমঙ্গল থানা পুলিশ সূত্রে আরও জানা যায়,আমিন তাঁর ভাতিজা মান্নান এর মাধ্যমে একটি সক্রিয় নেটওয়ার্ক গড়ে তোলে উপজেলাসহ জেলাব্যাপী নিষিদ্ধ ইয়াবা ট্যাবলেট বিক্রির অভিযোগ রয়েছে। মান্নান পুলিশের খাতায় তালিকা ভূক্ত একজন মাদক ব্যবসায়ি। এ পর্যন্ত সে একাধিকবার শ্রীমঙ্গল থানা পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়েছে। সে জেল হাজতে যাবার পর জামিনের মাধ্যমে মুক্তি পেয়েছে।

সিন্দুরখাঁন বিওপি’র বিজিবির সুবেদার আব্দুল হাই মুঠোফোনে জানান,শনিবার দিবাগত রাত তিনটারদিকে কুঞ্জবন গ্রাম থেকে সিন্দুরখান বিওপি’র বিজিবির একটি দল সিন্দুর খান ইউনিয়নের কামার গাঁও গ্রামের নূরুল ইসলামের ছেলে আমিন মিয়া ও কুঞ্জবন গ্রামের জমির উদ্দিনের ছেলে খুর্শেদ মিয়াকে কুঞ্জবন গ্রাম থেকে ৮পিস ইয়াবাসহ হাতে নাতে আটক করে।

ওই অভিযানে অংশ নেওয়া বিজিবির অপর এক সদস্য জানায়,বিজিবির উপস্থিতি টের পেয়ে আমিন ২০-২৫ পিস ইয়াবা তাৎক্ষনিকভাবে খেয়ে ফেলছিল। ইয়াবা খাওয়া অবস্থায় বাকী ৮পিস ইয়াবাসহ আমিন ও খুর্শেদকে হাতে নাতে তাদের আটক করা হয়।

এদিকে আমিন ও তাঁর সহযোগী খুর্শেদকে সিন্দুরখান বিজিবি ক্যাম্প থেকে ছাড়িয়ে নিতে শনিবার সকাল থেকে এ রিপোর্ট লিখা পর্যন্ত স্থানীয় একটি প্রভাবশালী মহল বিজিবি’র কাছে ধরনা দিচ্ছে। এবং বিজিবির হাতে আটককৃতদের সংবাদ এলাকায় ছড়িয়ে পড়ায় ক্যাম্পের আশপাশে উৎসুক জনতার উপচেপড়া ভিড় লেগে আছে বলে একাধিক নির্ভরযোগ্য সূত্র নিশ্চিত করেছে।

গ্রেফতারকৃতদের বাবার নাম ও ঠিকানা জানতে চাইলে সিন্দুরখাঁন বিওপি’র বিজিবির সুবেদার আব্দুল হাই মুঠোফোনে বলেন,এ মুর্হুতে বলতে পারছি না। আমার সামনে চেয়ারম্যান,মেম্বারসহ গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিবর্গ রয়েছেন ১০-১৫ মিনিট পরে ফোন দেন। তারপর খাতা দেখে বলতে পারব।






মন্তব্য চালু নেই