মেইন ম্যেনু

‘ষড়যন্ত্রকারীদের খুঁজতে কমিশন গঠন প্রক্রিয়াধীন’

পদ্মা সেতু নির্মাণ চুক্তি এবং দুর্নীতির মিথ্যা গল্প সৃষ্টির নেপথ্যে প্রকৃত ষড়যন্ত্রকারীদের খুঁজে বের করতে তদন্ত কমিশন গঠনের প্রক্রিয়া চলছে।

মঙ্গলবার বিচারপতি কাজী রেজা-উল হক ও বিচারপতি মোহাম্মদ উল্লাহর হাইকোর্ট বেঞ্চে রাষ্ট্রপক্ষের দাখিল করা প্রতিবেদনে এ কথা জানানো হয়েছে।

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে প্রতিবেদন দাখিল করেন সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল টাইটাস হিল্লোল রেমা।

এ ছাড়া এই রুলে পক্ষভুক্ত হতে যোগাযোগ ও সেতু মন্ত্রণালয় আদালতে আবেদন করেছে। এই বিষয়ে পরবর্তী শুনানির জন্য আগামী ৩ জুলাই ধার্য করা হয়েছে।

এর আগে গত ২০ মার্চ কমিটি বা কমিশন গঠনের অগ্রগতি প্রতিবেদন ৯ মের মধ্যে দাখিল করতে নির্দেশ দেন হাইকোর্ট।

গত ১৫ ফেব্রুয়ারি পদ্মা সেতু নির্মাণ চুক্তি এবং দুর্নীতির মিথ্যা গল্প সৃষ্টির নেপথ্যে প্রকৃত ষড়যন্ত্রকারীদের খুঁজে বের করতে তদন্ত কমিশন গঠন করতে কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না এবং দোষীদের কেন বিচারের মুখোমুখি করা হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন হাইকোর্ট।

দুই সপ্তাহের মধ্যে মন্ত্রিপরিষদ, স্বরাষ্ট্র, আইন ও যোগাযোগ সচিব এবং দুদকের চেয়ারম্যানকে রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

হাইকোর্টের আদেশ অনুযায়ী এ কমিটি বা কমিশন গঠনের বিষয়ে কী পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে ৩০ দিনের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে মন্ত্রিপরিষদ সচিবকে নির্দেশ দেওয়া হয়।

গত ১৪ ফেব্রুয়ারি একটি জাতীয় দৈনিকে `ইউনূসের বিচার দাবি : আওয়ামী লীগ ও সমমনা দলগুলো একাট্টা’ শীর্ষক প্রকাশিত প্রতিবেদনসহ বিভিন্ন পত্রিকার সংবাদের কথা নজরে নিয়ে হাইকোর্ট এ আদেশ দেন।

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল তাপস কুমার বিশ্বাস।






মন্তব্য চালু নেই