মেইন ম্যেনু

সংঘর্ষ, দখল ও বর্জনের মধ্যদিয়ে চলছে ইউপি নির্বাচন

সংঘর্ষ, দখল ও বর্জনের মধ্যদিয়ে চলছে ভোট গ্রহণ। দলীয় প্রতীকে প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত হওয়া এ নির্বাচনে কয়েকটি স্থানে সংঘর্ষের খবর পাওয়া গেছে। জেলা প্রতিনিধিদের পাঠানো খবরে এমনটি জানা গেছে।

নোয়াখালী প্রতিনিধি জানান, হাতিয়ার চরকিং সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্র দখলের সময় সংঘর্ষ হয়। এতে সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার ও পোলিং অফিসার গুলিবিদ্ধ হন। মঙ্গলবার সকালে ভোটগ্রহণের সময় আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থী মহিউদ্দিন এবং বিদ্রোহী প্রার্থী মহীনের কর্মী সমর্থকদের মধ্যে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

কুমিল্লার দেবিদ্বারের ফতেহাবাদ ও রসুলপুর ইউনিয়নে সংঘর্ষ, ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও গুলি বিনিময়ের ঘটনা ঘটেছে। এ সময় অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন। কুমিল্লা প্রতিনিধি পাঠানো তথ্যানুযায়ী, মঙ্গলবার সকালে ফতেহাবাদ ইউনিয়নের বড়কান্দা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও রউফ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি জানান, জেলার রামগতি ও কমলনগরে ভোট কেন্দ্র দখলকে কেন্দ্র করে বিক্ষিপ্ত সংঘর্ষে ২০ জন আহত হয়েছেন। এ সময় কয়েকটি ককটেল বিস্ফোরণও হয়। এসব ঘটনায় ২ জনকে আটক করা হয়েছে।

মুন্সিগঞ্জ প্রতিনিধি জানান, ভোটগ্রহণের শুরুতেই সিরাজদিখানের রসুনিয়া ইউনিয়নের বিএনপি প্রার্থী আব্দুল খালেক সিকদারের উপর হামলা চালায় প্রতিপক্ষ। এ সময় তার ৫ কর্মী সমর্থক আহত হয়।

বরিশাল প্রতিবেদক জানান, কারচুপি ও অনিয়মের অভিযোগে বিএনপির ৫ প্রার্থীসহ ৭ জন ভোট বর্জনের ঘোষণা দিয়েছেন। এদের মধ্যে হিজলা উপজেলার ৪টি ইউনিয়নে বিএনপির প্রার্থী রয়েছেন। এরা হলেন-মেমানিয়া ইউনিয়নে আফসার উদ্দিন হাওলাদার, হরিনাথপুর ইউনিয়নে মনজুর কবীর, গুয়াবাড়িয়া ইউনিয়নে আলী আহমেদ হাওলাদার এবং বড়জালিয়া ইউনিয়নে কলিলুর রহমান।

এছাড়া বরিশাল সদর উপজেলার রায়পাশা কড়াপুর ইউনিয়নে পপুলার মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে জাল ভোট দেয়ার অভিযোগে ভোটগ্রহণ সাময়িক স্থগিত করা হয়েছে। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার আসাদুজ্জামান জানান, কিছুটা গোলযোগের কারণে ভোটগ্রহণ বন্ধ রাখা হয়। পরিবেশ শান্ত হলে পুনরায় ভোটগ্রহণ শুরু করা হবে।

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার সকাল ৮টায় প্রথমবারের মতো দলীয় প্রতীকে ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। চলবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। এদিন সংশ্লিষ্ট নির্বাচনী এলাকায় সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে।

প্রথমবারের মতো চেয়ারম্যান পদে দলীয়ভাবে নির্বাচন হওয়ায় বেশির ভাগ এলাকায় আগে থেকেই আতঙ্ক ও উৎকণ্ঠা দেখা দিয়েছে। এ বিষয়ে নির্বাচন কমিশনেও (ইসি) রয়েছে উৎকণ্ঠা। তবে সুষ্ঠু ভোটগ্রহণ নিয়ে আশাবাদী ইসি।

তফসিল অনুযায়ী প্রথম ধাপে ৭৫২টি ইউপিতে ভোটের তারিখ ঘোষণা করা হলেও নানা জটিলতায় স্থগিত ও পিছিয়েছে ৩১টির ভোট।






মন্তব্য চালু নেই