মেইন ম্যেনু

চতুর্থ ধাপের ইউপি নির্বাচন________________________________

সংঘর্ষ, দখল-বর্জনের মধ্যদিয়ে চলছে ভোট গ্রহণ

সংঘর্ষ, জালভোট ও ভোটবন্ধের মধ্যেই চলছে চলমান ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনের চতুর্থ ধাপের ভোটগ্রহণ। সকাল ৮টা থেকে শুরু হয়ে ভোটগ্রহণ বিকেল ৪টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে।

নির্বাচন কমিশনের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, চতুর্থ ধাপে ৪৬ জেলার ৮৮ উপজেলার ৭০৩ ইউপিতে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। এর মধ্যে ৩৫ ইউপিতে আওয়ামী লীগের প্রার্থীরা বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হওয়ায় চেয়ারম্যান পদে ভোটগ্রহণ ৬৬৮ ইউপিতে।

নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৩ হাজার ২৪৫ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এছাড়া সদস্য পদে ২৪ হাজার ১৮৭ জন এবং নারী সদস্য পদে ৭ হাজার ১৫৯ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। সাধারণ সদস্য পদে ২২৭ জন প্রার্থী এবং নারী সদস্য পদে ৯৮ জন প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। নির্বাচনে মোট ৬ হাজার ৭২৭টি ভোটকেন্দ্রে প্রায় সোয়া কোটি ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগের সুযোগ পাচ্ছেন।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত, শনিবার ভোরে ফেনীর ছাগলনাইয়া উপজেলার জগন্নাথ শুভপুর প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রের বাহিরে দুই মেম্বর প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় ৪জন গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। গুলিবিদ্ধদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এদিকে, ভোট শুরু হওয়ার আগেই গভীর রাতে ব্যালট পেপারে নৌকা প্রতীকে সিল মারায় কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার একটি কেন্দ্রে ভোট স্থগিত করা হয়েছে। এ ঘটনায় প্রিসাইডিং কর্মকর্তাসহ ছয়জনকে আটক করা হয়েছে। মুন্সিরহাট ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে ঘটনাটি ঘটে।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা রাশেদুল ইসলাম জানান, ওই ইউনিয়নের যুগিরহাট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে গতকাল শুক্রবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে চেয়ারম্যান পদের এক হাজার ব্যালট পেপারে নৌকা প্রতীকে সিল মারা হয়। ওই ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী মো. মাহফুজ আলম। তাঁর পক্ষে এই সিল মারা হয়।

কুষ্টিয়ার সদর উপজেলার আবদালপুরে নির্বাচনের আগের রাতে উদ্ধার করা হয়েছে সিলমারা ব্যালট পেপার। এ ঘটনায় ওই কেন্দ্রের প্রিজাইডিং কর্মকর্তাকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।

রাত সাড়ে ৯টার পর সদর উপজেলার আবদালপুর ইউনিয়নের পশ্চিম আবদালপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র থেকে ১৩২৮টি সিলমারা ব্যালট পেপার উদ্ধার করা হয়।

আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থীর অভিযোগের প্রেক্ষিতে পুলিশ এসব ব্যালট পেপার উদ্ধার করে। তবে প্রিজাইডিং অফিসার বলেছেন এসব ব্যালট পেপারের পেছনে সিলমারা হয়েছে। কাজ এগিয়ে রাখার জন্য আমি এটা করেছিলাম।

অপরদিকে, একই উপজেলার আলামপুর ইউনিয়নের নোয়াপাড়া গ্রামের একটি কেন্দ্রে আওয়ামী লীগের চেয়ারম্যান প্রার্থীর এক কর্মীকে আগ্নেয়াস্ত্র নিয়ে আশপাশে ঘোরাঘুরি করার সময় আটক করেছে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব)।

আজ শনিবার সকাল সাড়ে আটটার দিকে ভোট চলাকালে কেন্দ্রের পাশ থেকে আবদুর রহমান মণ্ডলকে আটক করা হয়। তাঁর হাতের শটগানটি চেয়ারম্যান প্রার্থী আখতারুজ্জামানের নামে লাইসেন্স করা।

চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার শেখপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রের সহকারি প্রিজাইডিং অফিসার এবিএম মমিনুর রশীদকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। একই সাথে মনিরুল ইসলাম নামের এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ।

শুক্রবার রাতে হারদি ইউনিয়নের ঐ ভোটকেন্দ্রে বহিরাগত যুবক অবৈধভাবে ভোটকেন্দ্রে প্রবেশ করার কারণে এ সিদ্ধান্ত নেয় কর্তৃপক্ষ।

উল্লেখ্য, দেশের প্রায় সাড়ে চার হাজার ইউপিতে এবার ছয় ধাপে ভোটগ্রহণ করছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। ইতোমধ্যে তিনটি ধাপের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। তিন ধাপের নির্বাচনে প্রায় ৭০ জন ব্যক্তি নির্বচনী সহিংসতায় নিহত হয়েছে বলে পর্যবেক্ষক সংস্থা সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন) দাবি করছে। এছাড়া শতাধিক ব্যক্তি আহত হয়েছেন।

আগামী ২৮ মে পঞ্চম ধাপের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। এরপর ৪ জুন ষষ্ঠ ধাপের ভোটগ্রহণের মধ্য দিয়ে ইউপি নির্বাচন শেষ হবে।



« (পূর্বের সংবাদ)



মন্তব্য চালু নেই