মেইন ম্যেনু

সন্তানদের জন্য সেক্স ডল কিনছেন বাবা-মা!

সন্তানের হাঁটতে শেখা মায়ের হাত ধরে৷ তার পড়াশোনা, বেডে ওঠাও মায়ের সাহায্যেই৷ কিন্তু সন্তানের বিবাহিত জীবনে কি বাবা-মায়েরা সাহায্য করতে পারেন? একবাক্যে সকলেই এই উত্তরে হয়ত বলবেন- না৷ কিন্তু ডেনমার্কের ১ ট্র্যাভেল কোম্পানির কাছে জবাবটা- হ্যাঁ৷ কীভাবে? ওই সংস্থার অফার, এবার বাবা মায়েরাই সন্তানদের উপহাক দিতে পারে ‘সেক্সি হলিডে’৷

স্পাইস’ নামে এক ট্রাভেল কোম্পানি এই অভিনব ক্যাম্পেন নিয়ে হাজির হয়েছে৷ এর ফিছনে অবশ্য ডেনমার্কের

জনসংখ্যা বাডানোর উদ্যোগও আছে৷ পরিসংখ্যান অনুযায়ী, সে দেশে অল্পবয়সীদের তুলনায় বয়স্কদের সংখ্যা মাত্রাতিরিক্ত বেশী৷ অধিকাংশ দাদু বা ঠাকুমারই নাতি-নাতনির মুখ দেখার সৌভাগ্য হয়নি৷ সেই সব দাদু-দিদাদের উদ্দ্যেশ্যেই এই বার্তা৷ এই কোম্পানি জানাচ্ছে, দেশে জনসংখ্যা বাড়াতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিতে পারে তাঁরা৷

বিজ্ঞানসম্মত কারণেই মানুষের বেড়াতে ডসয়ে সঙ্গম প্রবণতা বেশি হয় বলে দাবি তাদের৷ কেননা এসময়ই বিশেষ হরমোন ক্ষরিত হতে থাকে৷ এছাড়া ডেনমার্কবাসী ছুটির মরশুমে অন্তত ৫০ শতাংশ বেশি ‘সেক্স’ করেন বলেই জানাচ্ছেন তারা৷ আর তাই সন্তানদের ‘সেক্স হলিডে’তে পাঠানোর নিদান দিচ্ছে তারা৷ তাদের অফার অনুযায়ী, যদি বাবা-মা তাঁদের সন্তানদের জন্য ‘সেক্স হলিডে’ বুক করেন তাহলে দেশেরও মঙ্গল হয়, তাঁরাও নাতি নাতনির মুখ দেখতে পান৷ ডেনমার্কে ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছে এই ক্যাম্পেন৷ সংস্থার আশা, অভিনব এই ক্যাম্পেনে আখেরে মঙ্গল হবে ডেনমার্কেরই৷






মন্তব্য চালু নেই